অনিয়মে পরিচালিত হচ্ছে জীবননগর উপজেলা পোষ্ট অফিসের কার্য

সরকারী নিয়ম-নীতিকে তোয়াক্কা না করেই জীবননগর উপজেলা পোষ্ট অফিসের সার্বিক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এই পোষ্ট অফিসে পোষ্ট মাস্টারের বেঁধে দেয়া নিয়মই সরকারী নিয়ম। তিনি যখন মনে করেন তখনই অফিস ছুঁটি। তার এক গুয়ামির কারনে পোষ্ট অফিসের সার্বিক কার্যক্রম ভেঙ্গে পড়েছে। ফলে সরকারী এই প্রতিষ্ঠান থেকে হয়রানীর শিকার হয়ে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন সাধারন গ্রাহকরা।

গ্রাহকদের অভিযোগ জীবননগর উপজেলা পোষ্ট মাষ্টার নূহু নবী কাজ না করে গ্রাহকদের সাথে অহেতুক অতিকথনের তর্কে লিপ্ত হয়ে সময় নষ্ট করেন। আর দুপুর হলেই পোস্ট অফিসের কার্যক্রম বন্ধ করে দেন। এছাড়াও প্রতিদিন তিনি গ্রাহকদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচারণ করে থাকেন বলেও অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,জীবননগর উপজেলা শহরের পোস্ট অফিসটি এখনও দৌলৎগঞ্জ পোস্ট অফিস হিসেবে তার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে এ পোস্ট অফিসটিতে লোকবল সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। ৬ জনের কাজ করতে হচ্ছে ৪ জনকে।

আফসার আলী নামে এক গ্রাহক অভিযোগ করে বলেন, পোস্ট মাষ্টার নূহু নবী জীবননগর উপজেলার এই পোস্ট অফিসটি তার পৈতৃক সম্পত্তিতে পরিনত করেছেন। তিনি তার খেয়াল খুশি মতো অফিসে আসেন এবং বাড়িতে চলে যান। অথচ পোস্ট অফিসের সাথে নির্মিত বাড়িতে থেকে তার কাজকর্ম করার নিয়ম রয়েছে। তিনি নিয়মকে তোয়াক্কা না করে প্রতিদিন বাড়ি থেকে যাতায়াত করে থাকেন। দ্রুত বাড়িতে যাওয়ার প্রবনতার কারণে তিনি অফিসের কাজকর্ম করা কালে অহেতুক তিনি গ্রাহকদের সাথে বচসায় লিপ্ত হয়ে থাকেন।

ফলে ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়েও শেষ পর্যন- কাজ শেষ না করতে পেরে গ্রাহকরা বিরক্ত হয়ে চলে যেতে বাধ্য হন। এছাড়াও জোহর নামাজের আজান দেওয়ার সাথে সাথে তিনি পোস্ট অফিসের কার্যক্রম বন্ধ করে দেন। যার কারণে প্রতিদিনই পোস্ট মাষ্টারের সাথে গ্রহকদের ঝগড়া-বিবাদের সৃষ্টি হয়ে থাকে।

জীবননগর উপজেলার বকুন্ডিয়া গ্রামের আশাদুল ইসলাম নামে একজন গ্রাহক অভিযোগ করে বলেন, গত রবিবার তিনি বেলা ৩ টার সময় পোস্ট অফিসে টাকা তুলতে গেলে পোস্ট মাষ্টার তাকে বলেন, আজ আর পোস্ট অফিসে টাকা নেই। কাল আসেন। কিন’ খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই দিন পোস্ট অফিসে প্রায় ১ লক্ষ টাকা ব্যালান্স ছিলো। অথচ তাকে টাকা না দিয়ে পোস্ট মাষ্টার নুহু নবী অফিস ছুটি হওয়ার আগেই ৩ টা ৫০ মিনিটের সময় অফিস ছেড়ে বাড়ি পথে রওনা হন।

জীবননগর উপজেলা পোষ্ট অফিসে কর্মরত একাধিক কর্মকর্তা নিজের নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান,প্রতিদিন পোস্ট মাষ্টার নুহু নবীর এ দৌরাত্বের কারণে দৌলৎগঞ্জ পোস্ট অফিসের কার্যক্রম স’বির হয়ে পড়েছে, বেড়েছে গ্রাহক ভোগানি- এবং সেই সাথে পোস্ট অফিসের আয়ও কমেছে।

এ ব্যাপারে পোস্ট মাষ্টার নুহু নবী জানান, উপজেলা সদরের এ পোস্ট অফিসটিতে যে পরিমাণ লোকবল থাকার কথা সে অনুযায়ী লোকবল নেই। ফলে প্রতিদিন কাজের পাহাড় জমে যায়। একা সব কাজ করতে হয় বলে দুপুরেই পোস্ট অফিসের কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ার কথা স্বীকার করেন। এছাড়াও গ্রাহকদের অভিযোগের ব্যাপারে বলেন অত্যাধিক ভিড় সামলাতে গিয়ে মাঝ-মধ্যে গ্রাহকদের সাথে সমস্যা সৃষ্টি হয়।
ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/চুয়াডাঙ্গা

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ভারতের সাথে আছেন সৌদি যুবরাজ

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ভারতের সাথে আছেন সৌদি যুবরাজ

ডেস্ক নিউজ :: কাশ্মীরে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ভারতীয় সেনাদের হত্যার জের ধরে ...