ফরহাদ খাদেম, ইবি প্রতিনিধি ::
অবশেষে দীর্ঘ ৮ বছর পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি পেয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগ। শুক্রবার (১০ মে) রাত ১০টার দিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে ১৯৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।  
কমিটিতে সভাপতি পদে আইন বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত ও সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনীত হয়েছেন অর্থনীতি বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী নাসিম আহমেদ জয়।
পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহ-সভাপতি ৭১জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ১১জন ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদ পেয়েছেন ১১জন। এছাড়া বিভিন্ন সম্পাদক ও উপ-সম্পাদক পদে ৩৮জন, সহ-সম্পাদক ১৫জন এবং সদস্য হিসেবে ৭জনকে মনোনীত করা হয়েছে।
এদিকে, দীর্ঘদিন পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি হওয়ায় উচ্ছ্বসিত শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। কমিটি ঘোষণার পর রাত ১১টার দিকে ক্যাম্পাসে আনন্দ মিছিল করেন তারা। মিছিলটি সংগঠনটির দলীয় কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রধান ফটকে গিয়ে শেষ হয়।
সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত বলেন, দীর্ঘদিন পর ইবি ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ হয়েছে। আমরা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে কৃতজ্ঞ। কমিটি পূর্ণাঙ্গ হওয়ার মধ্য দিয়ে ইবি ছাত্রলীগ আরও শক্তিশালী হয়েছে। এর মাধ্যমে নিবেদিত প্রাণ কর্মীরা পরিচয় পেলেন।
উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৬ সালে সাইফুল ইসলাম সভাপতি এবং অমিত কুমার দাস সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন ১২১ সদস্য বিশিষ্ট একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি পেয়েছিলো ইবি ছাত্রলীগ। এরপর ২০১৭ সালের ১৫ এপ্রিল শাহিনুর রহমান শাহিনকে সভাপতি ও জুয়েল রানা হালিমকে সাধারণ সম্পাদক করে মাত্র দুই সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। তবে এ কমিটি আর পূর্ণাঙ্গ হয়নি। পরবর্তীতে ২০১৯ সালের ১৪ জুলাই রবিউল ইসলাম পলাশ ও রাকিবুল ইসলাম রাকিবের নেতৃত্বে দুই সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়। কমিটি গঠনের তিন মাসের মাথায় সাধারণ সম্পাদকের পদ পেতে অর্থ লেনদেনের অডিও ক্লিপ ফাঁস হলে শাখা ছাত্রলীগের একাংশ সভাপতি-সম্পাদককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন। ফলে ওই কমিটি আর ক্যাম্পাসে কোনো কার্যক্রম চালাতে পারেনি। কোনো ধরনের কার্যক্রম ছাড়াই কমিটি তার মেয়াদকাল শেষ করে এবং মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রায় এক বছর চার মাস ২৩ দিন পর ২০২১ সালের ৮ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় সংগঠন উক্ত কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে।
উক্ত কমিটি বিলুপ্ত হওয়ার সাত মাস পর সর্বশেষ ২০২২ সালের ৩১ জুলাই ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাতকে সভাপতি এবং নাসিম আহমেদ জয়কে সাধারণ সম্পাদক করে ২৪ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করে জয়-লেখক নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here