ব্রেকিং নিউজ

৮ দফা দাবিতে বাগেরহাট ম্যাটস শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

মোঃ শহিদুল ইসলাম, বাগেরহাট প্রতিনিধি :: যৌন হয়রানি বন্ধসহ ৮ দফা দাবিতে বিক্ষোভ ও আন্দোলন কর্মসুচি পালন করেছে বাগেরহাট মেডিকেল এ্যাসিস্ট্যান্ট স্কুলের (ম্যাটস্‌) ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে শিক্ষার্থীরা শহরের মুনিগঞ্জস’ ম্যাটস্‌-এর ক্যাম্পাসে একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনের সামনে জড়ো হয়ে আন্দোলন শুরু করেন। এর আগে সোমবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত একই দাবিতে আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থী তুষার, আরাফাত, কুতুব, বেলাল, সোহাগ, অভিজিত দত্ত, মীম সাফিয়া নাজনীন, সাবিনা ইয়াসমিন, কেয়াসহ অনেকে বলেন, আমাদের অন্যতম দাবি ছিল প্রতিষ্ঠানের উচ্চমান সহকারী শেখ মহিউদ্দিন, ভান্ডার রক্ষক খান ফয়সাল রাতুল, অফিস সহায়ক মোঃ বাবুল হোসেন, বাবুর্চী আবু হানিফ ও নৈশ প্রহরী আব্দুল হামিদকে বহিস্কার করা। সেই কর্মচারীরাই আজকে প্রশাসনিক কাজ করছেন। এটা আমরা কোন ভাবে মেনে নিব না। যতক্ষন ওদেরকে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেওয়া হবে না, ততক্ষন আমাদের আন্দোলন চলবে।

শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। সেই কমিটির প্রধান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপপরিচালক ডা. সমীর কান্তি পাল আমাদেরকে ভাইবায় ফেল করিয়ে দেবার হুমকি দিয়েছে। যত হুমকী আসুক আমরা আমাদের ন্যায্য দাবির জন্য আন্দোলন চালিয়ে যাব।

তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রবিউল ইসলাম, মেহেদী হাসানসহ আরও কয়েকজন বলেন, এই ক্যাম্পাস আমাদের। কিন্তু ক্যাম্পাসে আমরা কোন প্রকার অধিকার নেই। স্থানীয় কিছু কর্মচারীরা ক্যাম্পাসের পুকুরের মাছ, গাছের ফলসহ সব কিছু ভোগ করেন। আমাদেরকে একটি গাছের ফল পর্যন্ত ছিড়তে দেওয়া হয় না।

শিক্ষার্থীরা বলেন, স্থানীয় এই কর্মচারীরা নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি হলে তাদেরকেও বিভিন্ন অত্যাচার করে। অহেতুক তাদের কাছ থেকে টাকা নেয়। আর টাকা না দিলে শুরু হয় নির্যাতন। এর সাথে রয়েছে মেয়ে শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানিসহ নানা অনিয়ম।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের অধ্যক্ষ স্যার সপ্তাহে মাত্র দুই দিন ক্যাম্পাসে আসেন। তার অনুপস্থিতিতে কলেজের কর্মচারীরা আমাদের উপর অত্যাচার করে।

কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মোঃ আব্দুর রকিব বলেন শিক্ষার্থীদের দাবির সাথে সম্মতি জ্ঞাপন করে সোমবার রাতেই আমি চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। এই কমিটি ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সকল অভিযোগের তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন পেশ করবেন। তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা গ্রহন করব। এরপরেও আজকে দুপুরে শিক্ষার্থীরা কেন আন্দোলন করল তা আমাদের বুঝে আসে না।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে আমার অনুপসি’তির বিষয়ে যে অভিযোগ করেছে, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমি ক্যাম্পাসের বাইরে অবস্থান করলে, অবশ্যই ছুটি নিয়ে করি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

১৫ আগষ্টের খুন ও ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জিয়াউর রহমান জড়িত: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার :: দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে দেশবাসীর সহযোগিতা ...