২ সিটির মেয়র প্রার্থী ১৪ জন, কাউন্সিলর ১০২৫

স্টাফ রিপোর্টার :: ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোট ১৪ জন মেয়র প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে উত্তর সিটিতে সাতজন এবং দক্ষিণ সিটিতে সাতজন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থীসহ অধিকাংশ প্রার্থী মঙ্গলবার শেষ দিনে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এর আগে দুই সিটিতে মেয়র পদে মোট ১৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন দুই হাজার ২৬০ জন। কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এক হাজার ২৫ জন।

বৃহস্পতিবার রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে। মঙ্গলবার শেষ দিনে দুই রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ছিল প্রার্থী ও সমর্থকদের সরব উপস্থিতি। নিজ প্রার্থীর পক্ষে এ সময় তারা স্লোগানও দিয়েছেন। নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী একজন প্রার্থীর সঙ্গে পাঁচজনের বেশি উপস্থিতির সুযোগ না থাকলেও অধিকাংশ মেয়র প্রার্থী সেটা অমান্য করেছেন। অনেক কাউন্সিলর প্রার্থীও বিপুলসংখ্যক কর্মী-সমর্থক নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এতে লঙ্ঘন হয়েছে নির্বাচনী আচরণবিধি। রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে তাদের মৌখিকভাবে সতর্কও করা হয়েছে।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে জানা গেছে, দক্ষিণ সিটিতে মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের শেখ ফজলে নূর তাপস, বিএনপির ইশরাক হোসেন, জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবদুর রহমান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আকতার উজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লা, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির বাহরানে সুলতান বাহার ও গণফ্রন্টের আব্দুস সামাদ সুজন।

উত্তর সিটিতে মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম, বিএনপির তাবিথ আউয়াল, জাতীয় পার্টির জি এম কামরুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ফজলে বারী মাসউদ, পিডিপির শাহীন খান, সিপিবির সাজেদুল হক ও এনপিপির আনিসুর রহমান দেওয়ান।

ঢাকা উত্তর সিটিতে ভোটার সংখ্যা ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২১ জন। এই সিটির ৫৪টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৭৪ প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এই সিটির ১৮টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের বিপরীতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ৮৯টি। অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে ভোটার সংখ্যা ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৮ জন। এই সিটির ৭৫টি সাধারণ ওয়ার্ডের বিপরীতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ৪৬০টি এবং ২৫টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের বিপরীতে মনোনয়ন জমা পড়েছে ১০২টি।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনের মূল ভবনের সঙ্গে নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে ঢাকা উত্তর সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় খোলা হয়েছে। এখানে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ছিল প্রার্থী ও সমর্থকের উপচেপড়া ভিড়। এর মধ্যেই দুপুর সাড়ে ১২টায় আতিকুল ইসলাম মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসেন। অন্যদিকে সোয়া ১২টায় ঢাকা দক্ষিণ সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে আসেন শেখ ফজলে নূর তাপস। নির্বাচনী আইন অনুযায়ী, প্রস্তাবকসহ পাঁচজনের বেশি ব্যক্তি নিয়ে প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তার দপ্তরে আসতে পারবেন না। আবার কোনো বহরও নিয়ে যাওয়া যাবে না। তবে আতিকুল ও তাপসের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আগে দুই রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে শতাধিক নেতাকর্মী ভিড় করেন। এই দুই মেয়র প্রার্থী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে শতাধিক নেতাকর্মী তাদের ঘিরে ধরেন।

 

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রংপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

অনলাইন ডেস্ক : রংপুরের হারাগাছ এলাকায় নবম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগে ...