জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর অধ্যাপক গোলাম আযমের বিরুদ্ধে শিগগিরই একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ এনে চার্জশিট দেওয়া হবে জানিয়েছেন আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসের আগেই জামায়াত নেতা গোলাম আযমকে গ্রেপ্তার হবে।

শনিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ঠিকানা বাংলাদেশ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় কামরুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘একজনের বিচার শুরু হয়েছে। আগামী দুই মাসের মধ্যে শীর্ষ কয়েকজনের বিচার শুরু হবে। এ বিচার দ্রুত করার জন্য প্রয়োজনে একাধিক ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হবে।’

এ সময় মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল সংগঠনের প্রতি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের পক্ষে জনমত তৈরি করারও আহবান জানান প্রতিমন্ত্রী।

বিরোধী দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘এতিমদের টাকা মেরে খেয়েছেন। তাই দুদক মামলা করেছে। যদি সৎ সাহস থাকে, তাহলে আদালতে এসে আত্মসমর্পণ করে আইনি প্রক্রিয়ায় জামিন নিন। তা না হলে এর বিচার হবেই।’

কামরুল ইসলাম বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধীরা খালেদার ঘাড়ে চেপে বসেছে। তাদের সাথে বিএনপির অস্তিত্ব বিলীন হয়ে গেছে। কাজেই তাদের আলাদা করার সুযোগ নেই। সময় বেশি নেই, শত্রু -মিত্র চিহ্নিত হয়ে গেছে। যারা যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষ নেবে তাদের বিচার করা হবে।’

সংগঠনের সভাপতি বেগম রুবি হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহম্মদ হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলম মুরাদ প্রমুখ।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/ঢাকা

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here