ব্রেকিং নিউজ

হীরেন পণ্ডিত’র কবিতা ‘দেশরত্ন তুমি ফিরে এসেছিলে বলে’

দেশরত্ন তুমি ফিরে এসেছিলে বলে

– হীরেন পণ্ডিত

সেদিন সকালে পাখি তখনো ডাকেনি
ভোর হবার আগেই
ঘাতকের বুলেট কেড়ে নেয় জাতির পিতার প্রাণ,
এরপর একে একে ঘাতকের টার্গেট হয় পরিবারের সবাই
বুকফাটা আর্তনাদ করে কেঁদে উঠেছিলো দেশবাসী,
খবর শোনে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলো পৃথিবী!
বাংলার আকাশটা বড্ড কষ্ট পেয়েছিলো সেদিন,
সমুদ্রের ঢেউগুলো আছড়ে পড়ে কেঁদেছে বালুরাশির উপর
গগন বিদারী কান্নায় বুক ভাসিয়ে ছিলো পাখিগুলো,
প্রকৃতিটা সেদিন বড় বিষন্ন ছিলো
জাতির পিতাকে হারানোর বেদনায়।

কবি এখনো তোমার মন কাঁদে, সব সময়
স্বজন হারানোর বেদনায়,
রক্তাক্ত হয়ে যায় আকাশ, মাটি, সব প্রান্তর
প্রবাসে অনেক যন্ত্রণা নিয়ে ভেবেছো
প্রিয় মাতৃভূমির কথা।

তারপর বাঙালি জাতি কত অপেক্ষা করেছে,
কবি তুমি ফিরে আসবে, এই প্রতীক্ষায়,
তুমি ফিরে আসার আগে
এদেশ ছিলো শ্বাপদসংকুল,
ভূলুণ্ঠিত ছিলো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা,
বিকৃত ছিলো বাংলার ইতিহাস
দেশ হয়ে উঠেছিলো অবরুদ্ধ এক উপত্যকা।

তারপর একদিন ফিরে এলে তুমি
দেশ মাতৃকার টানে,
গড়তে পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা
বাংলার মানুষের পাশে থেকে,
মুক্তির সংগ্রামে শামিল হয়ে
চরম দুঃসময়ে দাঁড়ালে ঐক্যের প্রতীক হয়ে
শুরু হলো কবির গণতন্ত্র উদ্ধারের সংগ্রাম।

নতুন করে লিখলে তুমি বাংলার কবিতা
দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে
বারবার পেছনে ফেলে এসেছো মৃত্যুকে.
বারবার ঘাতকের বুলেট তোমাকে করেছে তাড়া
তবুও থামাতে পারেনি তোমার উন্নয়নের কবিতা, এগিয়ে চলার গান
জাতিকে মুক্ত করলে, গণতন্ত্রের কবি।

কবি তোমার প্রেরণা হয়েছে
এদেশের মানুষ, আর তাঁদের ভালোবাসা।
একুশ বছর পর কবি তুমি লিখলে
দেশ পরিচালনার কবিতা।
প্রতিষ্ঠিত হলো গণতন্ত্র, কবি তোমার হাত ধরে

পিতার সোনার বাংলার কবিতা
লেখা শুরু হয় নতুন করে
আর এদেশের মানুষ মুক্তি পেলো বন্দী দশা থেকে
তুমি দেখা দিলে গণতন্ত্রের মানসকন্যা হয়ে।

শত বাঁধা আর প্রতিকূলতার মাঝেও
এগিয়ে চলে কবি
বলিষ্ঠ নেতৃত্ব, আর দূরদৃষ্টি নিয়ে
লেখা হয় উন্নয়নের কবিতা
সে কবিতায় দেশ আজ বিশ্বের রোল মডেল
বিশ্বের নন্দিত নেত্রী হয়েছো তুমি ।

মানুষের ভালোবাসায় তুমি আজ দেশরত্ন
গণতন্ত্র আর মানুষের ভালোবাসা
এই দুই সোপান,
নিয়ে এগিয়ে চলেছে কবি।

কবির পদচারণা আজ শুধু বাংলায় নয়,
সারা বিশ্বে!
পিতার রক্ত ধমনীতে ধারণ করে
নতুন শপথে
পিতার স্বপ্ন নিয়েই
এগিয়ে চলে কবি।

সোনার বাংলা আজ হয়েছে
ডিজিটাল বাংলা,
যে স্বপ্ন কেউ দেখেনি কোনদিন
দেখিয়েছো তুমি, সেই স্বপ্ন
এ দেশের মানুষকে,
অবাক বিস্ময়ে বিশ্বের মানুষ দেখে কবিকে!

দেশের ভালো কিছু সব
গড়া কবির হাতে
সব উন্নয়ন আজ হাতের ছোঁয়ায়
সবকিছুই পেয়েছে এই বাংলা
তোমার কাছে।

কবি তোমার উন্নয়নের ছোঁয়া আজ সবখানে
তোমাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখে
এদেশের অসহায় মানুষ।
তাঁদের আশার প্রদীপ নিয়ে
এগিয়ে যাও তুমি।

এ দেশের বঞ্চিত আর নিপীড়িত মানুষ
পেয়েছে তাঁদের যোগ্য সম্মান,
মুক্তিযোদ্ধারা পেলো বীরের মর্যাদা।

রাজনীতি আর কূটনীতি,
তোমাকে করেছে মহান
এনে দিয়েছে বিশ্বসভায় শ্রেষ্ঠ সম্মান।

পিতার খুনী আর যুদ্ধাপরাধী
এসেছে বিচারের আওতায়
তোমার সততা, নিষ্ঠা
আর দেশপ্রেমের কাছে
হেরে যায় মানুষ, হেরে যায় সবাই।

দেশরত্ন তুমি ফিরে এসেছিলে বলেই
বাংলা আজ সোনার বাংলা।
তোমার বাংলা এগিয়ে যাবে
আপন লক্ষ্যে।

তুমি এসেছিলে বলে
তোমার বাংলা
আজ নতুন সাজে,
নতুন পরিচয়ে পরিচিত সারা বিশ্বে।

জাতির পিতা দিয়েছে স্বাধীনতা
আর তুমি দিলে সমৃদ্ধি
ধন্য এই বাংলা পেয়ে তোমাকে।
তুমি জীবন্ত এক কিংবদন্তী
এক জীবন্ত এক ইতিহাস।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

দুর্যোগে শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ নবম

ডেস্ক রিপোর্ট: চলতি শতকের ২০ বছরে বিশ্বের যে ১০টি দেশ সবচেয়ে বেশি ...