ডেস্ক নিউজ :: ইরাকে মার্কিন বাহিনীর হামলায় নিহত ইরানের ‘কুদস বাহিনী’ প্রধান জেনারেল কাশেম সোলাইমানির জানাজায় ভিড়ের মধ্যে পদদলিত হয়ে অন্তত ৪০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১৯০ জন।

বিবিসি জানিয়েছে, মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে মঙ্গলবার তার নিজের শহর কেরমানে দাফন করার কথা। এ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাস্তায় লাখো মানুষের ঢল নামে। সেখানে পদদলিত হয়ে ৪০ জন নিহত হন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১৯০ জন।

এরআগে মঙ্গলবার সকালে সোলাইমানির মরদেহ তার শহর কেরমানে পৌঁছে। এসময় দেশটির জাতীয় বীরকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে লাখো মানুষ কেরমানের প্রধান রাস্তা ও পার্শ্ব রাস্তায় জড়ো হন। তাদের পরনে ছিলো কালো পোশাক, হাতে ছিলো ইরানের পতাকা এবং সোলাইমানির ছবি।

সোমবার দেশটির রাজধানী তেহরানে সোলাইমানির জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেয় অন্তত ১০ লাখ মানুষ। তারা কালো ব্যাচ ও পোশাক পরে, পতাকা উড়িয়ে ও সোলাইমানির ছবি বুকে নিয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এছাড়া তারা ‘আমেরিকার মৃত্যু চাই’ বলে শ্লোগান দিতে থাকে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন হামলায় নিহত হন ইরানের এলিট ফোর্স হিসেবে পরিচিত বিপ্লবী গার্ড করপোরেশনের (আইআরজিসি) ‘কুদস বাহিনী’র প্রধান জেনারেল কাশেম সোলাইমানি। এরপর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here