ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডেস্ক ::

দৃশ্যধারণ ও সম্পাদনা শেষে বড়ুয়া মনোজিত ধীমন প্রযোজিত আলী আজাদ পরিচালিত ‘পদ্মা সেতু’ সিনেমাটি জমা পড়েছিল সেন্সর বোর্ডে। কিন্তু পদ্মা সেতু নিয়ে ভুল তথ্য পরিবেশনের অভিযোগে মিলল না কাঙ্ক্ষিত ছাড়পত্র। জানানো হয়েছে, ‘পদ্মা সেতু’ ছবিটির ব্যাপারে তাদের বেশ কিছু ‘অবজারভেশন’ রয়েছে।

সেন্সর বোর্ড সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বোর্ডের সদস্যরা সিনেমাটি দেখেছেন। সিনেমাটি দেখে বেশ ক্ষুব্ধ সেন্সর বোর্ডের অন্যতম সদস্য চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান। তাঁর দাবি, সিনেমাটিতে পদ্মা সেতুকে অপমান করা হয়েছে। ‘দুঃখের বিষয় হলো, পরিচালক এতে যেসব তথ্য দিয়েছেন তার মধ্যে অনেক তথ্যই ভুল। এ ধরনের রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার ক্ষেত্রে ভুল তথ্য দেশের ইমেজের জন্য ক্ষতিকর। তাই আমরা সিনেমাটিকে সেন্সর না দিতে প্রাথমিকভাবে সম্মত হয়েছি।

এ বিষয়ে সিনেমা সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে, পরবর্তী মিটিংয়ে এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

পদ্মা সেতু ছবির পরিচালক আলী আজাদের দাবি, ‘ভুল তথ্য উপস্থাপনের বিষয়টি সত্য নয়। আমার সিনেমায় কোনো ভুল তথ্য পরিবেশন করা হয়নি। যা কিছু দেখানো হয়েছে, তা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় আগেই এসেছে।’

এ প্রসঙ্গে প্রযোজক বড়ুয়া মনোজিত ধীমন বলেন, “আমিও শুনেছি ‘পদ্মা সেতু’ সিনেমায় ব্যাপারে বেশ কিছু ‘অবজারভেশন’ রয়েছে সেন্সর বোর্ডের। কিন্ত অফিসিয়ালি আমার হাতে এখনও কোনো কাগজ আসেনি। তেমন কোনো দিক নির্দেশনা এলে অবশ্যই সেটা মেনে আবেদন করা হবে। আমরা সবসময় সেন্সর বোর্ডকে সম্মান জানাই। তাদের মূল্যায়নের প্রতি আমাদের আস্থা আছে।

‘পদ্মা সেতু’ সিনেমার পুরো শুটিং হয়েছে পদ্মা সেতু এলাকায়। চলচ্চিত্রটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাঞ্জু জন ও অলিভিয়া মাইশা। বিভিন্ন চরিত্রে আরও আছেন রায়হান মুজিব, হিমেল রাজ,আনোয়ার সিরাজী, শান্তা পাল প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here