মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল, নোয়াখালী প্রতিনিধি ::

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় বেপরোয়া গতির সিএনজি চালিত অটোরিকসা ও ব্যাটারী চালিত অটোরিকসার মুখোমুখি সংঘর্ষে সিএনজির যাত্রী মাদরাসা ছাত্র মোহাম্মদ আলী(২২) নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় সিএনজি চালিত অটোরিকসা চালক আক্তার হোসেন(২৫)কে আটক করে চরজব্বার থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে স্থানীয়রা। নিহতের পিতা বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়ের করেন।
চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) কাউসার আলম ভূঁইয়া এজাহার ও আটকের বিষয়ে নিশ্চিত করেন।
মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে উপজেলার চরজব্বার-সোনাপুর সড়কের সুলতান নগর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত মাদরাসার ছাত্র হলেন সুবর্ণচর উপজেলার চরক্লার্ক ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ চরক্লার্ক এলাকার মো. ফয়েজ উল্যাহর ছেলে। সে চাঁদপুর জেলার জামিয়া হাবিবীয়া কাওমি মাদরাসার মেসকাত জামাতের ছাত্র।
পুলিশ ও এজাহার সুত্রে জানা যায়, মোহাম্মদ আলী চাঁদপুরে ঈদ করে গতকাল বিকেলে বাড়ি ফিরছেন। চাঁদপুর থেকে নোয়াখালী সদরের সোনাপুর এসে সিএনজি চালিত অটোরিকসা যোগে সুবর্ণচরের বাড়ি ফিরছেন। পথে সোনাপুর-চরজব্বার সড়কে সুলতান নগর এলাকায় আসলে বেপরোয়া গতির সিএনজি চালিত অটো রিকসা ও বিপরীত থেকে আসা ব্যাটারী অটোরিকসার সাথে সংঘর্ষ লেগে দূর্ঘটনা ঘটে। এতে সিএনজিতে থাকা মোহাম্মদ আলীর পায়ে, মাথা ও মুখে গুরুতর আঘাত লাগে । স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে অ্যাম্বুলেন্স যোগে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে রাত আটটার দিকে সে মারা যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন সিএনজি ও সিএনজি চালককে আটক চরজব্বার থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করে এবং ব্যাটারী চালিত অটোরিকসা চালক পালিয়ে যায়।
চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) কাউসার আলম ভূঁইয়া বলেন, সিএনজি চালিত অটোরিকসা চালক আক্তার হোসেনকে আটক করে চরজব্বার থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে স্থানীয়রা। তবে ব্যাটারী চালিত অটোরিকসা চালক পালিয়ে যায়। নিহতের পিতা বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়ের করেন।  লাশ ময়নাতদন্তে জন্যে বুধবার সকালে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হবে আর আটককৃত সিএনজি চালক আক্তার হোসেনকে আদালতে পাঠানো হবে।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here