মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল, নোয়াখালী প্রতিনিধি ::
নোয়াখালীর সুবর্ণচরে অসহায় ভূমিহীনদের বসবাসের শেষ ঠিকানাটুকু গিলে খাচ্ছে ভূমিগ্রাসীরা ও ভূমিখেকোগণ। প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে সাধারণ ভূমিহীনরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চরজব্বর থানার মোড়ের মুক্তিযোদ্ধা চত্বরে মানবন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
ছমীর হাট ভূমিহীন অঞ্চল কমিটির আয়োজনে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা নিজেরা করির সহযোগিতায় সংগঠনের কর্মকর্তা জসিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন,  ভূমিহীন নেতা ও আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি মাস্টার মোঃ গিয়াস উদ্দিন, ভূমিহীন নেতা সোহেল, ছমীর হাট ভূমিহীন অঞ্চল কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, ভূমিহীন আতিকুর রহমান সাজু,আলমগীর হোসেন,ইয়াসিন মেম্বার,নিজেরা করি ট্রেইনার সবিতা তালুকদার,ভূমিহীন নেত্রী মারজাহান আক্তার, ভূমিহীন নেতা নুর উদ্দিন, আহমেদ করিম প্রমূখ।
এসময় ভূমিহীন বক্তাগণ বলেন, চরের খাস জমিতে বছরের পর বছর বসবাস করে আসছে ভূমিহীনগণ। কিন্তু কতিপয় জোরদার,ভূগ্রাসী ভূমিখেকোগণ নামে বেনামে জালও ভূয়া দলিল তৈরি করে অসহায় ভূমিহীনদের বসতভিটা থেকে জ্বোরপূর্বক উচ্ছেদ করছে। ওরা প্রশাসনের দূর্নীতিবাজ অসৎ কর্মকর্তাদের যোগসাজশে এসব ভূয়া এবং জাল দলিল তৈরি করছে বলে অভিযোগ করেন।
ভূমিহীন নেতা মাষ্টার গিয়াস উদ্দিন বলেন, ৭নং পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের চর নঙ্গোলীয়া মৌজায় প্রায় ৬০ বছর পূর্বে নদী ভাঙ্গনের ফলে জমি গুলো ১ নং খাস খতিয়ান ভূক্ত হয়। নদী ভেঙ্গে সৃষ্ট চরে প্রায় ৫০ বছর পূর্বে বন বিভাগ বাগান তৈরি  করে। পরবর্তীতে কতিপয় ব্যক্তির উদ্যোগে বন উজাড় করে ভূমিহীনদের মাঝে চাষাবাদ ও বসবাস করতে জমিগুলো বন্টন করে। তারই ধারাবাহিকতায় অসহায় ভূমিহীনগণ এসব ভূমিতে চাষাবাদ ও বসবাস করে আসছে। কিছু কিছু ভূমি এসব ভূমিহীনদের মাঝে বন্দোবস্তমূলে বিতরণ করা হয়।
পাশাপাশি এসব ভূমি হতে ভূমিহীনদের উচ্ছেদ করে ভূমিগুলো নামে বেনামে, মাছের ঘেরের আড়ালে নিজেদের দখলে নিয়ে ভূমিহীনদের বিতাড়িত করে দেয়।

ছমীর হাট ভূমিহীন অঞ্চল কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, ভূমিখেকো জোরদারদের নাম বক্তব্যে উল্লেখ করেন। এরা হলেন লক্ষীপুরের সাবেক এমপি আব্দুল আউয়াল, সোনাগাজী নিবাসী আজিম, অবসরপ্রাপ্ত কর্ণেল মাসুদ উদ্দিন, চর আমান উল্লাহ ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন, এবং তার সহযোগী নুর আলম মানিক। এসব জোরদারগণ বয়ার দাবীতে খাস খতিয়ানের জমি নিজেদের নামে ভূয়া রেকর্ড করে নিয়েছে। এসব ভূয়া রেকর্ড তৈরি করে তারা জ্বোর করে অসহায় ভূমিহীনদের তাদের বাড়ীঘর হতে উচ্ছেদ করছে।

মানববন্ধন শেষে ভূমিহীন নেতারা সমাবেশে মিলিত হয়ে, জোরদার,ভূগ্রাসী, ভূমিখেকোদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রসাশক সহ সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে আহবান জানান। জ্বোরদারদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা না নিলে জেলা প্রসাশকের কার্যালয় ঘেরাও সহ বড় কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে বলে হুশিয়ারি দেন।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here