মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ  নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নে আবুল কালাম (৫৫) নামের এক কৃষককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় জড়িত থাকায় পান্না আক্তার (২৪) নামের এক গৃহবধূকে আটক করা হয়েছে।
বুধবার সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
নিহত আবুল কালাম দক্ষিণ চর মজিদ ৯নং ওয়ার্ডের সামছুল হকের ছেলে। তিনি এক ছেলে ও দুই মেয়ের জনক। আটককৃত পান্না আক্তার একই এলাকার রিয়াজ উদ্দিনের স্ত্রী।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কৃষক আবুল কালাম তার ঘরের পাশে কিছু ধানের খড় রাখে। বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পাশ্ববর্তী বাড়ীর রিয়াজ উদ্দিন ও তার স্ত্রী পান্না আক্তার আবুল কালামের বাড়ীতে আসে। এসময় তারা আবুল কালামকে কিছু না জানিয়ে ওই খড়গুলো নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। বিষয়টি দেখতে পেয়ে তাকে জিজ্ঞাস না করে কেন খড়গুলো নিছে জানতে চাইলে রিয়াজ উত্তেজিত হয়ে উঠে। এর এক পর্যায়ে আবুল কালামের সাথে বাকবির্তকে জড়িয়ে পড়ে রিয়াজ ও পান্না আক্তার। কিছু বুঝে উঠার আগে রিয়াজ ধাক্কা দিয়ে আবুল কালামকে মাটিতে ফেলে দেয়।
পরে রিয়াজ, পান্না ও রিয়াজের মা হোসনে আরা বেগম এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আবুল কালামকে জখম করে পালিয়ে যায়। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ঘরে নিয়ে গেলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আবুল কালামের মৃত্যু হয়।
চরজব্বার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সকালে নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিয়াজের স্ত্রী পান্না আক্তারকে আটক করা হয়েছে। ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে। পরবর্তীতে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here