বাপ্পি চৌধুরীআমানত উল্লাহ সোহান:: বাংলা সিনেমা দর্শক টানতে পারেছেনা এমন সমালোচনা অর্ধযুগ ধরেই শুনতে হচ্ছে। সাধরণ দর্শকের দাবি আগের মতো ভালো নায়ক-নায়িকা নেই। বিশিষ্টি জনদের দাবি ভালো ছবির গল্প নেই। পরিচলকরা প্রডিউসার নেই বলেই লাপাত্তা। আর প্রডিউসারদের দাবি আমরা লগ্নিকারি আমরা আমাদের বিনিয়োগের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পরছিনা বলেই বাংলা সিনেমা থেকে মুখ পিড়িয়ে নিচ্ছি। কিন্তু, আসলে সমস্যাটা কোথায়? রোজই নায়ক নায়িকাদের এরুকম প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়। এদের কাতার থেকে বাদ যায়নি নায়ক বাপ্পি চৌধুরীও । কিন্তু, বাপ্পির দাবি সিনেমা হলে প্রোপার স্ক্রিন নেই বলেই দর্শক সিনেমা থেকে বিনোদন পায়না আর তাই দর্শক মুখ পিড়িয়ে নিচ্ছে সিনেমা থেকে।

বৃহস্পতিবার “অচেনা পৃথিবী” ছবির শুভ মহরত অনুষ্ঠানে বক্তব্যদান কালে এমন দাবি করেন জনপ্রিয় অভিনেতা বাপ্পি চৌধুরী।

এ সময় তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন সিনেমা হলে পাখা এবং বিদ্যুৎের ভালো ব্যাবস্থা নেই এই সমস্যাটাতো আছেই। এখন আমার কথা হচ্ছে সিনেমাটা একটা বিনোদনের যায়গা এখানে এসে যদি একজন দর্শককে এতো সমস্যা ফেস করতে হয় তাহলে দর্শক কি দ্বিতীয়বার সিনেমা দেখতে আসবে? কখনোই না।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের কয়েকটা সিনেমা হলে দর্শক প্রোপার স্ক্রিন পেলেই চলবে না। লোকাল সিনেমা হলেও যদি আমরা প্রোপার স্ক্রিন নিশ্চিত করতে পারি তবে দেখবেন দর্শক লাইন ধরে সিনেমা দেখেতে আসবে। আমি আবারো বলছি সিনেমা একটা বিনোদনের যায়গা এখানে বিনোদন উপভোগ করাই যদি প্রবলেমের হয়ে দাঁড়ায় তবে দর্শক বিনোদন পাবে কি করে?। আমি এ ব্যাপারে সঠিক উদ্যেগ নেওয়ার জন্য বাংলা চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকলের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

প্রসঙ্গত, বাপ্পি চৌধুরী দেশের প্রথম ডিজিটাল চলচ্চিত্রের অভিনেতা। তিনি ২০১২ সালে “ভালোবাসার রং” চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয় জীবন শুরু করেন। তারপর সাফল্যের সাথে প্রেম প্রেম পাগলামি, অন্যরকম ভালোবাসা, তবুও ভালোবাসি সহ উল্লেখযোগ্য দর্শকপ্রিয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

 

 

 

 

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here