ব্রেকিং নিউজ

সার্চ কমিটিতে নিরাশ, শক্তিশালী ইসি চায় বিএনপি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন (ইসি) চাইছে বিএনপি। বিগত ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে একতরফা সরকার গঠন করে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। আর তাই তাদের অধীনে কোন নির্বাচনে যাওয়ার ইচ্ছা বিএনপি নেই বলে দলটির শীর্ষ নেতারা দাবি করছেন।

বিএনপি নেতারা বলছেন, ইসি গঠনের জন্য মহামান্য রাষ্ট্রপতি যে সার্চ কমিটি ঘোষণা করেছে, তাতে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ হবে না। এই সার্চ কমিটি রাজনৈতিক দোষে দুষ্ট। তারা এও বলছেন, আগামী নির্বাচনের আগে শক্তিশালী ইসি গঠন করা সম্ভব হলে একটি স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ হতে পারে।

ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি ঘোষণার পর বিএনপি নেতাদের দাবি, এই কমিটির সদস্যদের সঙ্গে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সখ্যতা রয়েছে। সদস্যরা সরকারের নির্বাচিত সদস্য হিসেবে কমিটিতে ঠাঁই পেয়েছেন।

তবে মহামান্য রাষ্ট্রপতির ওপর তাদের বিশ্বাস রয়েছে, উনি একটি শক্তিশালী ইসি উপহার দিয়ে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করবে।

দলীয় একটি সূত্র বলছে, বিএনপি’র ওপর জনগণের ভালোবাসা ও সমর্থন উভয় রয়েছে, এখন শুধু একটি স্বাধীন ও শক্তিশালী ইসি গঠন হলে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব। আর সে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভরাডুবি হবে এটা স্পষ্ট। নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী এক লাখের মতো ভোট পেয়েছেন। সারাদেশের ৩০০টি সংসদীয় আসনের চিত্র মোটেও এরকম নয়। আমাদের ভোট ব্যাংক রয়েছে, ছিলো এবং আগামীতেও থাকবে।

অবশ্য বিএনপির ভেতর ও বাইরে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে হবেন এটা নিয়ে গুঞ্জন চলছে। অনেক নেতা বলছেন, সরকার রকিবউদ্দীন আহমেদ মার্কা সিইসি করতে যাচ্ছে, আবার অন্যরা শক্তিশালী ইসির জন্য নিরপেক্ষ ব্যক্তিকে সিইসি করা হবে বলে আশাবাদী। সবশেষ সার্চ কমিটির বৈঠকের পর দলের নেতারা অবশ্য নতুন করে কিছুই বলছেন না।

সার্চ কমিটি ঘোষণার পর নিরাশ হয়েছেন বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলছেন, অনুসন্ধান কমিটি কী কাজ করবে, তা স্পষ্ট। তাই তাদের কাছ থেকে নতুন কোন আশার আলো দেখছেন না তারা। মানুষ দেশের রাজনৈতিক সংকট উত্তরণে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের আশা করেছিল। কিন্তু অনুসন্ধান কমিটিতে যাদের রাখা হয়েছে, তাদের কাছ থেকে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন আশা করা যায় না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ সার্চ কমিটি নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। রোববার দুপুরে প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, এই কমিটি নির্বাচন কমিশনার হিসেবে এমন ব্যক্তিদের নাম প্রস্তাব করবে, যাদের কোন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা ছিলো না, নেই। জ্ঞান, সততা ও গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে এমন ব্যক্তিদের নাম তারা (সার্চ কমিটি) সুপারিশ করবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনের বিষয়টি গোটা দেশবাসী এখন মহামান্য রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। আমরা তার প্রতি আস্থাশীল। তিনি আমাদের সকলের অভিভাবক হিসেবে ইসি গঠনে যথাযথ পদক্ষেপ নিবেন। মহামান্য রাষ্ট্রপতি সকল দলের জন্য আদর্শ ইসি গঠন করবেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশ পাঠাতে চায় পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার :: খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা করাতে চায় তার পরিবারের ...