ডেস্ক রিপোর্ট:: পাবনার সাঁথিয়ায় বাড়িঘর ভাঙচুরের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন স্থানীয় ৬ সাংবাদিক। এ সময় সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও ক্যামেরা-বুম ছিনিয়ে নিয়ে ভাঙচুর করেছে হামলাকারীরা।

হামলার শিকার সাংবাদিকরা হলেন, সাঁথিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক কালবেলার সাঁথিয়া প্রতিনিধি মানিক মিয়া রানা, প্রতিদিনের সংবাদের পাবনা জেলা প্রতিনিধি খালেকুজ্জামান পান্নু, আরটিভির পাবনা উত্তর প্রতিনিধি তাইজুল ইসলাম, মোহনা টিভির পাবনা পূর্ব প্রতিনিধি ইকবাল হোসেন, আনন্দ টিভির সাঁথিয়া প্রতিনিধি মনোয়ার পারভেজ মানিক এবং চ্যানেল এস ও মানবকন্ঠের সাঁথিয়া প্রতিনিধি এম জে সুলভ।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার নন্দনপুর ইউনিয়নের রাঙ্গামাটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্ত দুইজনকে আটক করেছে। আটকরা হলেন, রাঙ্গামাটিয়া গ্রামের মৃত একেন আলী সরদারের ছেলে নাসির সরদার (৪২) ও হেলাল সরদার (৪৫)।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সাংবাদিকদের পক্ষে সাঁথিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মানিক মিয়া রানা বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে রাঙ্গামাটি গ্রামে তৈয়ব আলীর বাড়িঘর ভাঙচুরের সংবাদ সংগ্রহ করতে যান বেশ কয়েকজন সাংবাদিক। তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ভাঙচুরকৃত ঘর-বাড়ির ছবি তোলার সময় সাংবাদিকদের বাধা দিয়ে তাদের উদ্দেশ্যে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন দুই ভাই নাসির ও হেলাল। তারা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারি বলে দাবি ভুক্তভোগী সাংবাদিকদের।

একপর্যায়ে আরটিভির প্রতিনিধি তাইজুল ইসলাম ভিডিওধারণ করতে গেলে তার হাতে থাকা ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয় এবং আনন্দ টিভির সাঁথিয়া প্রতিনিধি মনোয়ার পারভেজ মানিকের বুম ভাঙচুর করে পুকুরে ফেলে দেয় অভিযুক্তরা।

এ ঘটনা তাৎক্ষণিকভাবে মুঠোফোনে পুলিশকে অবগত করেন ভুক্তভোগী সাংবাদিকরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং ঘটনাস্থল থেকে নাসির ও হেলাল নামের দু’জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

এ ঘটনায় সাঁথিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মানিক মিয়া রানা বাদী হয়ে দুপুরে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ।

সাঁথিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মানিক মিয়া রানা বলেন, ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। সেইসঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় সাংবাদিকরা কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করবে।

এ বিষয়ে সাঁথিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। দু’জনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here