আন্তর্জাতিক ডেস্ক।

864070ba3c2বয়স এবং ভগ্নস্বাস্থ্যের কারণে দায়িত্ব পালন করা কঠিন হয়ে পড়ছে বলে জানিয়েছেন জাপানের সম্রাট আকিহিতো। ৮২ বছর বয়সী সম্রাট আজ সোমবার দ্বিতীয়বারের মতো দেওয়া টেলিভিশন ভাষণে একথা বলেন।

বিবিসি অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, ভাষণে সিংহাসন ‘ত্যাগ’ করার বিষয়ে কোনো কথা সরাসরি না বললেও আকিহিতো বেশ জোরালোভাবে দায়িত্ব থেকে সরার কথা বলেছেন।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে বলেছেন, তারা সম্রাটের এই ভাষণকে ‘গুরুত্ব সহকারে’ নিচ্ছেন। আর এ বিষয়ে ভবিষ্যৎ করণীয় নিয়ে তাঁরা আলোচনা করবেন।

সম্রাট আকিহিতোর হৃৎপিণ্ডে এর আগে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তার প্রোস্টেটের ক্যানসারও আছে। বাবা সম্রাট হিরোহিতোর মৃত্যুর পর ১৯৮৯ সালে তিনি সিংহাসনে বসেন। টেলিভিশনে সম্রাটের দেওয়া ১০ মিনিটের ভাষণটি আগে ধারণ করা ছিল।

আকিহিতো যদি সিংহাসন ছেড়ে দেন, তবে ১৮১৭ সালের পর এটিই হবে প্রথম ঘটনা। ওই বছর সম্রাট কোকাকু সিংহাসন ছেড়ে দেন। জাপানের প্রচলিত আইন অনুযায়ী, সম্রাট মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সিংহাসনে থাকবেন। প্রধানমন্ত্রী আবের ডানপন্থী জাতীয়তাবাদী সমর্থকেরা চান না, এই আইনের পরিবর্তন হোক। আইনটি সংশোধন করতে হলে সংবিধানের সম্মতি নিতে হবে।

আকিহিতোর পর রাজপুত্র ৫৬ বছর বয়সী নারুহিতো এ পদে আসীন হতে পারেন। এরপরই আছেন তার ছোট ভাই আকিশিনো।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here