মাহমুদুর রহমান(তুরান), ফরিদপুর প্রতিনিধি ::

ফরিদপুর-৩ (সদর) আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য এ.কে. আজাদ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। তিনি আজ দুপুরে টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তাবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান।

পরে তিনি পবিত্র ফাতেহা পাঠ করে বঙ্গবন্ধু, ৭৫ এর ১৫ আগস্টের শহীদ ও মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মউৎসর্গকারী ৩০ লাখ শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেন। প্রার্থনা করা হয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের সদস্যদের জন্য ।

পরে তিনি বঙ্গবন্ধু সমাধি সৌধের প্রশাসনিক ভবনে যান। সেখানে রক্ষিত পরিদর্শন বইতে মন্তব্য লিখে স্বাক্ষর করেন তিনি। এর আগে তিনি টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি বিজাড়িত স্থানগুলো পরিদর্শন করেন।

সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জাতীয় সংসদে স্বতন্ত্র মোর্চা গঠনের আগ্রহ প্রকাশ করেন ফরিদপুর-৩ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য এ.কে. আজাদ। তিনি বলেন, এই প্রথম ৬২টি আসন পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। জাতীয় পার্টি পেয়েছে মাত্র ১১টি আসন। আমরা সবাই আওয়ামী লীগেই দায়িত্বপ্রাপ্ত আছি। আওয়ামী লীগ থেকে আহ্বান করা হয়েছে স্বতন্ত্র নির্বাচনের জন্য। আমরা বিভিন্ন প্রতীক নিয়ে নির্বাচন
করেছি। আমরা মনে করি, আমাদের এই ৬২ জনকে যদি একটা মোর্চা করা সুযোগ দেওয়া হয় তাহলে আমরা সকলে মিলে স্পিকারের কাছে আহ্বান করব। আমরা সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করব।

এ সময় ফরিদপুর নিয়ে নিজের উন্নয়ন ভাবনা জানাতে গিয়ে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য এ. কে. আজাদ বলেন, বেকারত্ব কমাতে ফরিদপুরে শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলা হবে। সবাই মিলে মিশে ফরিদপুরকে উন্নয়নের রোল মডেল বানাব। এতে তরুণদের কর্মসংস্থান হবে। কমে আসবে বেকার সমস্যা।

এ সময় ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী জাহিদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আইভি মাসুদ, ফরিদপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র শেখ মাহাতাব আলী মেথু, পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক মনিরুল হাসান মিঠু, যুগ্ম আহবায়ক মনিরুজ্জামান মনির ও অ্যাডভোকেট বদিউজ্জামান বাবুল, সাবেক সভাপতি নাজমুল ইসলাম খন্দকার লেভী, ফরিদপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক মানোয়ার হোসেন, ফকির মো. বেলায়েত হোসেন, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুসরাত রসুল তানিয়া, ডিক্রিরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান মিন্টু, মাচ্চর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদ মুন্সি, আলীয়াবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক ডাবলু, অম্বিকাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চৌধুরী বারি, মোকাররম মিয়া বাবু, মো. রিয়াদ মিয়া, কামাল হোসেন, মো. আলী
মিনার, আসিবুর রহমান ফারহান, সোহানুর রহমান সোহান, তামজিদুর রহমানসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুলসংখ্যক নেতা-কর্মী, সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here