স্টাফ রিপোর্টার:: নতুন বছরের শুরুতেই নাটোরে সব ধরনের শীতকালীন সবজির দাম কমেছে। মাত্র ২ দিনের ব্যবধানে নাটোর শহরের স্টেশন বাজারের পাইকারি সবজির বাজারে কোনো কোনো সবজি কেজিপ্রতি ২০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। এতে কৃষকের মাঝে দেখা দিয়েছে হতাশা। বাজারে সরবরাহ বেশি হওয়ায় সবজির দাম কমছে বলে জানান আড়তদাররা।

প্রতিদিন ভোর থেকে নাটোর শহরের বড় পাইকারি সবজির বাজার স্টেশন বাজারে কৃষক তাদের উৎপাদিত ফসল নিয়ে আসেন। অনেক স্বপ্ন নিয়ে কৃষকরা ফসল নিয়ে এই বাজারে আসলেও বর্তমান দামে হতাশ তারা।

রোববার (০৩ জানুয়ারি) ভোরে নাটোরের স্টেশন বাজারে গিয়ে দেখা যায়, প্রতি কেজি লাল আলু ৩০-৩৫ টাকা, সাদা আলু ২৫-২৮ টাকা, টমেটো ৩৫-৪০ টাকা, ফুলকপি ১৮-২০ টাকা, বেগুন ১৮-২০ টাকা, মুলা ৩-২ টাকা, লাউ ১০-১২ টাকা, সিম ১৫-১৬ টাকা, পেঁপে ১০ টাকা, ব্রুকলি ২০ কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত সবজির দাম ভালো থাকলেও গতকাল শনিবার থেকে কমতে থাকে সব ধরনের সবজির দাম। কোনো কোনো সবজি গত সপ্তাহের তুলনায় ২০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে। হঠাৎ দাম কমে যাওয়ায় উৎপাদন খরচ উঠছে না কৃষকের। এতে ঋণ শোধ নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষক।

এই পাইকারি বাজারে গত দুই সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন প্রায় ৬০০ মণ সবজি সরবরাহ হলেও এখন প্রতিদিন সরবরাহ হচ্ছে প্রায় এক হাজার ২০০ মণ। আড়তদারদের দাবি, দ্বিগুণ সরবরাহ হলেও পর্যাপ্ত ক্রেতা না থাকায় সবজির দাম কমেছে।

চলতি বছর নাটোর জেলায় প্রায় লাখ টন শীতকালীন সবজি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে স্থানীয় কৃষি-বিভাগ। আর এ পর্যন্ত প্রায় ২৫ হাজার টন সবজি ক্ষেত থেকে তোলা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here