ডেস্ক নিউজ:: শেষের খুব কাছেই আছেন চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। এতটাই যে, প্রতিটা আইপিএলের আগেই ধরা হয় এটাই সম্ভবত তার শেষ আইপিএল। গেল আইপিএলের আগে একটা ধারণা ছিল, এটাই হতে পারে ধোনির শেষ। তবে সবার ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে তিনি এবারও আঁটঘাট বেধে নেমেছেন শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে। শুধু তাই নয় তাকে হাতছানি দিয়ে ডাকছে আইপিএলের অনন্য কিছু রেকর্ডও।

মারকুটে ব্যাটিং, ছক্কা হাঁকানোর দক্ষতা আর বাহারি চুলের কারণে ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে ক্রিকেট বিশ্বের নজরে এসেছিলেন ধোনি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে চুলের সে কাট এখন আর নেই। তবে মারকুটে ব্যাটিংটা ঠিকই রয়ে গেছে তার। ছক্কা হাঁকানোর একটা মাইলফলক পড়ে আছে তার সামনে। চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে শেষ আইপিএলে তার ছক্কার সংখ্যা ১৮৬টি। ২০০ ছক্কা ছুঁয়ে ফেলতে তার প্রয়োজন আর মাত্র ১৪টি ছক্কা। তবে আইপিএল ক্যারিয়ারে তার ছক্কার সংখ্যা অবশ্য ২০০ পেরিয়ে গেছে সেই কবেই। মাঝে ২০১৬ আর ২০১৭ আইপিএলে খেলেছিলেন রাইজিং পুনে সুপারস্টার্সের হয়ে, সে দুই মৌসুমে মেরেছিলেন ৩০টি ছক্কা।

তবে আইপিএলে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ডটার ধারেকাছেও নেই তিনি। সর্বোচ্চ ছক্কার তালিকায় শীর্ষে আছেন ক্রিস গেইল (৩৪৯), দুইয়ে আছেন এবি ডি ভিলিয়ার্স (২৩৫), এরপরই আছেন ধোনি (২১৬)।

ছক্কার দিক থেকে প্রথম হতে না পারলেও একটা মাইলফলকে অবশ্য প্রথম হতে পারেন তিনি। উইকেটরক্ষণে সর্বোচ্চ ডিসমিসালের রেকর্ডটা আছে তার দখলেই, তার শিকার ১৪৮টি ডিসমিসাল। তবে আর দুটো ডিসমিসাল বাগাতে পারলেই প্রথম উইকেটরক্ষক হিসেবে আইপিএলে ১৫০ ডিসমিসালের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলবেন তিনি।

দারুণ অর্জনের দুয়ারে দাঁড়িয়ে আছে তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারও। ৭০০০ রান থেকে আর মাত্র ১৭৯ রান দূরে আছেন তিনি। গেল মৌসুমে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে আইপিএল কাটিয়েও করেছিলেন ১৪ ম্যাচে ২০০ রান। ফলে আসন্ন আইপিএল মৌসুমে যে এই মাইলফলক ছোঁয়াটাকে সময়ের ব্যাপার বলেই মনে হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here