সামিন আরহাম , স্পোর্টস ডেস্ক :: ম্যাচে দাপট দেখিয়ে খেলেছে পর্তুগাল। কিন্তু প্রথমে এগিয়ে যায় চেক রিপাবলিকই। পরে তাদের আত্মঘাতী গোলে পর্তুগাল সমতায় ফিরলেও ম্যাচটা শেষ হতে যাচ্ছিল ড্রয়ে। সেখান থেকে ইনজুরি টাইমের গোলে নাটকীয় জয় পর্তুগিজদের।

লাইপজিগের রেড বুল এরেনায় ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে চেক রিপাবলিককে ২-১ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে রোনালদোর পর্তুগাল।

প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণ করেও চেক রিপাবলিকের রক্ষণ ভাঙতে পারেনি পর্তুগাল। ম্যাচের অষ্টম মিনিটে রাফায়েল লিয়াওয়ের ক্রস থেকে বক্সের মধ্যে হেড নিয়েছিলেন রোনালদো। কিন্তু একটুর জন্য সেটি পোস্টের বাঁদিক ঘেষে বেরিয়ে যায়।

৩২ মিনিটে ম্যাচের সবচেয়ে সহজ সুযোগটা পান রোনালদো। ব্রুনো ফার্নান্দেজের ক্রস থেকে গোলরক্ষককে একা পেয়ে গোল করতে ব্যর্থ হন সিআরসেভেন।

প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে আবারো গোলের চেষ্টা করেছিলেন রোনালদো। এবার তার শট রুখে দেন চেকিশ গোলরক্ষক জিন্ডরিচ স্টানেক। প্রথমার্ধে গোলশূন্য সমতা নিয়েই বিরতিতে যায় দুই দল।

পর্তুগিজদের অবশ্য বেশিক্ষণ হতাশায় থাকতে হয়নি। ৭ মিনিট পরই সমতায় ফেরে তারা। ছয় গজ দূর থেকে নুনু মেন্ডেজের শট আটকে দিলেও হাতে রাখতে পারেননি চেক গোলরক্ষক স্টানেক। বল ছুটে সামনে দাঁড়িয়ে থাকা সতীর্থ রবিন রানাকের পায়ে লেগে নিজেদের জালেই জড়িয়ে যায়।

৮৭ মিনিটে এগিয়ে উৎসবে মেতেছিল পর্তুগাল। কিন্তু ডিয়েগো জটার গোল বাতিল হয়ে যায় রোনালদো অফসাইডে থাকার কারণে। নির্ধারিত সময় শেষ হয় ১-১ সমতায়।

তবে ইনজুরি টাইমের দ্বিতীয় মিনিটেই পেদ্রো নেতোর পাস ছয় গজ বক্সে পেয়ে তা জালে জড়িয়ে দেন বদলি ফ্রান্সিসকো কনসেইসাও।

শেষ মুহূর্তে তার গোলেই যে পূর্ণ ৩ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে পর্তুগাল।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here