মোহাম্মদ মাসুদ, সরাইল প্রতিনিধি ::

সেবার এক ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহন করেছেন ১৯৭৮ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিকদের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন ‘সরাইল প্রেসক্লাব’। সভা নয়। কোন আনুষ্ঠানিকতাও নেই। বাজবে না মাইক। প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি থাকবে না। হবে না বক্তৃতা। সুবিধাভোগিদের পাঁয়ে হেঁটে দূর দূরান্তে আসতে হবে না।

কম্বলের অপেক্ষায় বসে থাকতেও হবে না। অসহায় দরিদ্র ও প্রতিবন্ধীদের বাড়িতে গিয়ে প্রেসক্লাবের সংবাদ কর্মীরা পৌঁছে দিচ্ছেন কম্বল। কনকনে শীত ও ঘন কূঁয়াশা উপেক্ষা করে আজ বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই কম্বল নিয়ে  দরিদ্র শীতার্তদের বাড়িতে ছুটে চলেছেন প্রেসক্লাবের সদস্যরা।

সরাইল সদর, কালীকচ্ছ ও নোয়াগাঁও ইউনিয়নের প্রায় অর্ধশতাধিক শীতার্ত নারী পুরূষ ও প্রতিবন্ধীর হাতে তারা পৌঁছে দিয়েছেন কম্বল। প্রেসক্লাবের এই কর্মসূচি চলবে আরো ২-৩ দিন।

লক্ষমাত্রা হচ্ছে দেড় শতাধিক পরিবার। সরাইল সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মৃধা আহমাদুল কামাল, ত্রিতাল সংগীত নিকেতনের অধ্যক্ষ লেখক ও গবেষক সঞ্জীব কুমার দেবনাথ বলেন, সরাইল প্রেসক্লাব বরাবরই বিভিন্ন জনগুরূত্বপূর্ণ কর্মকান্ডের মাধ্যমে ইতিহাস গড়ে চলেছে।

এটিও সেবার একটি অনন্য দৃষ্টান্ত ও ইতিহাস। তারা প্রমাণ করছেন সাংবাদিকরা শুধু সংবাদের পেছনেই ছুটে চলে না। সমাজ ও দেশের জন্যও তারা কাজ করেন।

মানবসেবার মহান ব্রতেও তারা কাজ করেন। সেই সেবার প্রকৃতিও ভিন্ন।  কোন আনুষ্ঠানিকতা না করে অসহায়দের বাড়িতে শীত বস্ত্র পৌঁছে দিয়ে আরেকটি ইতিহাস গড়ল সরাইল প্রেসক্লাব। তাদেরকে উৎসাহ উদ্দীপনা দিয়ে পাশে থাকা আমাদের দায়িত্ব।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here