মাহমুদা হক মনিরা :: অ্যাকশন ফর সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট (এএসডি) দীর্ঘদিন ধরে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করে আসছে। এএসডি’র এই পথচলায় অনেক আস্থাভাজন এবং শুভাকাঙ্ক্ষী পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। অনেকে আবার মাতৃস্নেহ দিয়ে নিজ হাতে শিশুদের জন্য রান্না করে নিয়ে আসেন, এমনকি পরিবারের আনন্দের মুহূর্তও এই সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের সাথে ভাগ করে নেন। যারা আর্থিক অনুদান ও বিভিন্ন প্রয়োজনীয় উপাদান সামগ্রী প্রদানের মাধ্যমে শিশুদের পথ চলায় সঙ্গী হয়েছেন তাদের অবদানের প্রতি সম্মান প্রদর্শন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশের জন্য এএসডি আজ রবিবার (১৭ জানুুুুুয়ারি) বিকেলে মোহাম্মদপুরের ওয়াইডব্লিউসিএ মিলনায়তন সভাকক্ষে সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এএসডি’র নির্বাহী পরিচালক জামিল এইচ চৌধুরী, এএসডি’র ম্যানেজার মনিটরিং এন্ড ইভ্যালুয়েশন লুৎফুন নাহার কান্তা, এএসডি’র প্রকল্প ব্যবস্থাপক, ডিসিএইচআর প্রজেক্ট ইউ. কে. এম. ফারহানা সুলতানা, এএসডি’র সহ সভাপতি, নির্বাহী কমিটি ড. আলতাফ হোসেন এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন এএসডি’র ডিসিএইচআর প্রজেক্ট অফিসার গুল-ই-জান্নাত জেনী।

এসময় সম্মানিত অতিথিবৃন্দের হাতে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেওয়া হয়।

স্বাগত ও শুভেচ্ছা বক্তব্যে জামিল এইচ চৌধুরী বলেন, “আপনারা যারা শিশুদের প্রতি স্নেহ, মমতার ও উদারতার হাত বাঁড়িয়ে দিয়েছেন, অনেকের সাথেই বিচ্ছিন্নভাবে দেখা হয়েছে। কিন্তু সবার সাথে একসাথে সময় কাটানোর খুব ইচ্ছে ছিল। আজকে আমি নিজেকে খুবই ভাগ্যবান মনে করছি আজকে সবাইকে দাওয়াত দিয়েছি, আপনারাও এসেছেন। এই শীতের সন্ধ্যায় আপনাদের উপস্থিতিই প্রমাণ করে যে আপনারা সাথে রয়েছেন।”

অনুষ্ঠানে সংস্থার কার্যক্রমের উপস্থাপন করেন লুৎফুন নাহার কান্তা এবং ইউ. কে. এম. ফারহানা সুলতানা। এসময় তারা ধাপে ধাপে সংস্থার কার্যক্রম, কাজের অগ্রগতি এবং সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে নানা ধরনের পরিকল্পনা তুলে ধরেন। এই উপস্থাপন থেকে পথ শিশুদের এক অংশের জীবন যাপনের সার্বিক চিত্র ফুটে উঠে। এসময় পথ শিশুদের অসহায়ত্বের বর্ননা তুলে ধরতে একটি আলোকচিত্রও প্রদর্শন করা হয়।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত সম্মানিত অতিথিবৃন্দ শিশুদের নিয়ে তাদের নানা স্মৃতিচারন করেন এবং তাদের কাজের কিছু কথা ও পথ শিশুদের নিয়ে নানান ভাবনা প্রকাশ করেন। একই সাথে সম্মাননা পেয়ে তারা এএসডি’র প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

সবশেষে সমাপনী বক্তব্যে ড. আলতাফ হোসেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত সম্মানিত সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের পাশে সকলকে একযুগে কাজ করার জন্য আহবান জানান।

সম্মানিত অতিথিবৃন্দের হাতে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেওয়া এবং ফটোসেশানের মাধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here