ষ্টাফ রিপোর্টার :: অবশেষে কুষ্টিয়ায় সড়কে শিশু আকিফার মৃত্যুর ঘটনাটি হত্যা মামলায় পরিনত হলো। সেই সাথে গ্রেফতার হলেন গঞ্জেরাজ পরিবহনের বাসের চালক মহিদ মিয়াও। বৃহস্পতিবার র‍্যাব কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেফতারের খবর জানানো হয়।
গত ২৮ আগস্ট ফয়সাল গঞ্জেরাজ নামের বাসটি কুষ্টিয়া জেলার চৌড়হাস মোড়ে দাঁড়িয়ে ছিলো। এ সময় থামানো বাসের সামনে দিয়ে মেয়েকে কোলে নিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিলেন আকিফার মা। হঠাত্ বাসটি দ্রুত চলতে শুরু করলে ধাক্কা লেগে মায়ের কোল থেকে পড়ে যায় আকিফা। এতে তার মৃত্যু হয়।
পরে এ ঘটনায় কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি হত্যাচেষ্টার মামলা হয়। মামলায় বাসের মালিক, চালকসহ তিনজনকে আসামি করা হয়। পরে ৯ সেপ্টেম্বর বাসের মালিক মো. জয়নাল আবেদীনকে (৬৩) গ্রেফতার করে পুলিশে সোপর্দ করে র্যাব।
পরদিন আদালতে পাঠায় পুলিশ। একইদিন আদালতে আত্মসমর্পণ করেন চালক মহিদ মিয়াও। এরপর তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত জামিন দিয়ে দেয়।
পরদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সুমন কাদেরী মামলাটি ৩০২ ধারায় সংযোজন করার জন্য একই আদালতে আবেদন করেন। আদালত আবেদন মঞ্জুর করেন।
একই সঙ্গে আদালতের উপ-পরিদর্শক আজহার আলী বাসের মালিক ও চালকের জামিন আদেশ বাতিলের আবেদন করলে আদালত তাঁদের জামিন আদেশ বাতিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেফতার হলেন মহিদ মিয়া।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here