ব্রেকিং নিউজ

শিশুদের চক্ষুরোগ চিকিত্সায় বিশ্বমানের বিশেষায়িত ওটি এখন ঢাকায়

তাসকিনা ইয়াসমিন তাসকিনা ইয়াসমিন :: শিশুদের চক্ষুরোগ চিকিত্সায় ঢাকার আগারগাঁওয়ে জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে উদ্বোধন হলো বাংলাদেশে জাতীয় পর্যায়ে প্রথম বিশ্বমানের বিশেষায়িত অপারেশন থিয়েটার।  

জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক ও ন্যাশনাল আই কেয়ারের লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক জালাল আহমেদ আজ বুধবার (মে ২৭) অপারেশন থিয়েটারটি উদ্বোধন করেন। 
 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অরবিস ইন্টারন্যাশনালের বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. মুনীর আহমেদ এবং জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের শিশু চক্ষুবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মো. ফরহাদ হোসেন। জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের চিকিত্সক, কর্মকর্তা, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
 
জাতীয় শিশু অন্ধত্ব দূরীকরণ কর্মসূচির আওতায় অরবিস ইন্টারন্যাশনাল অপারেশন থিয়েটারটি স্পন্সর করছে, যেটি বাংলাদেশে শিশুদের চক্ষুরোগ চিকিত্সায় একটি মাইলফলক। শিশু অন্ধত্ব দূরীকরণের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে অরবিস।
 
জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল এবং অরবিস বলছে, ইন্টান্যাশনাল এজেন্সি ফর প্রিভেশন অব ব্লাইন্ডনেস (আইএপিবি)-অনুমোদিত মানের এ অপারেশন থিয়েটার থেকে শিশুরা প্রায় বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের সেবা পাবে।
 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় অধ্যাপক জালাল আহমেদ এবং ডা. মুনীর আহমেদ এ অপারেশন ইউনিটটির সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য আন্তরিকভাবে কাজ করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান। 
 
চক্ষুচিকিত্সার ক্ষেত্রে মান বজায় রাখার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে অধ্যাপক জালাল বলেন, “ভাল সেবা নিশ্চিত না করতে পারলে অতি মূল্যবান এ অপারেশন ইউনিটটির স্থাপন মূল্যহীন হয়ে পড়বে। কেবলমাত্র উন্নত মানের সেবা নিশ্চিত করার মধ্য দিয়ে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারবো।”
 
ডা. মুনীর আহমেদ বলেন, জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের সরঞ্জাম ও সেবা আগের চেয়ে উন্নত হয়েছে। আগামী দিনগুলোতে সেগুলো আরো উন্নত হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
 
ডা. মুনীর বলেন, অরবিস হাসপাতালগুলোকে শুধু যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম দেয় না, এটি পথ দেখায় কীভাবে উন্নত মানের সেবা নিশ্চিত করা যায়।  তিনি আশা করেন, অপরিণত নবজাতকের দৃষ্টি সমস্যা নিয়ে জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল আরো বেশি কাজ করবে।
 
ডা. মুনীর আরো বলেন, এ অপারেশন থিয়েটার থেকে চক্ষুচিকিত্সা খাতের শিক্ষার্থীরাও উপকৃত হবেন।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৭১ শতাংশ সরকারি হাসপাতালে ধূমপান হয়

স্টাফ রিপোর্টার :: রাজধানীর ৭১ শতাংশ সরকারি হাসপাতালে ধূমপান করা হয়। আর ...