ফরহাদ খাদেম, ইবি সংবাদদাতা ::
অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা শিক্ষার্থীদের নিয়মিত কুষ্টিয়া কোর্টে নিয়ে যাবেন। সেখানে যদি শিক্ষার্থীদের মাসে কিংবা ছয় মাসে একদিন করেও যদি শিক্ষার্থীদের কোর্টে নিয়ে যাওয়া হয় তাহলে তারা জানতে পারবে কীভাবে আদালত পরিচালনা হয়, কীভাবে মামলা পরিচালনা করতে হয় এবং কীভাবে শাস্তি দিতে হয়। যেটি তাদের পরবর্তী সময়ে অনেক সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। 
শনিবার (১৮ মে) দুপুর দুইটায় বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) কর্মকর্তা সমিতি কর্তৃক আয়োজিত গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
তিনি আরও বলেন, আমরা দেখি বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনেক ভাল করে। এতে বোঝা যায় আপনাদের শিক্ষকরা ক্লাসে অনেক ভালো পাঠদান করেন। শিক্ষার্থীদের সফল হওয়ার পিছনে শিক্ষকদের অবদান অনেক।
সুপ্রিম কোর্টেও আপনাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক বিজ্ঞ আইনজীবী রয়েছেন। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে রয়েছেন। যারা আপনাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে অনেক উপরে তুলে ধরেছেন। আপনাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে সাহায্য করার যদি বিন্দু মাত্র সুযোগ থাকে আমি তা অবশ্যই করবো।
এর আগে, বেলা সোয়া ১১ টায় ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’ মুর‍্যালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন অতিথিরা। পরে অ্যাটর্নি জেনারেলকে গার্ড অব অনার প্রদান করে ইবি থানা। এসময় প্রশাসন ভবনের সামনে বৃক্ষরোপন করেন অতিথিরা। বৃক্ষরোপণ শেষে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে এসে আলোচনাসভায় মিলিত হয় তারা।
অনুষ্ঠানে কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি দেওয়ান টিপু সুলতানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুল সালাম। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ্যাড. কে এম মাসুদ রুমী এবং এ্যাড. বি এম আব্দুর রাফেল। অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার ছিলেন সাবেক এমপি ও সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যক্ষ ড. শাহজাহান আলম সাজু।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রীম কোর্ট বার এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শাহ মনজুরুল হক ও কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ নুরুল হুদা আনছারী। এসময় স্মারক বক্তব্য প্রদান করেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এইচ এম আলী হাসান। এছাড়া স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপ রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) এ.টি.এম এমদাদুল আলম। এসময় বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিদ হাসান মুকুট।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here