শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রমাণিত

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে নবম শ্রেণির পাঁচ ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের প্রমাণ মিলেছে তদন্ত প্রতিবেদনে। প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মাহাবুবুর রশিদ তালুকদার রবিবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, তদন্ত কমিটি শনিবার সন্ধ্যায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

তদন্ত কমিটির প্রধান ও প্রতিষ্ঠানের উপাধ্যক্ষ মির্জা ফিরোজ হাসান জানান, ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের প্রমাণ পাওয়ায় অভিযুক্ত শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। ওই পাঁচ শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে একাধিকবার কথা বলে নিপীড়নের সত্যতা পাওয়া যায় বলে জানান তিনি।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকার দীর্ঘদিন ধরে নবম-দশম (ভোকেশনাল) শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানের সামনের একটি ঘরে প্রাইভেট পড়াতেন। প্রায়ই ছার্ত্রীদের যৌন নিপীড়ন করতেন বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরদ্ধে।

সমপ্রতি তার বিরুদ্ধে পরীক্ষার খাতায় নম্বর বেশি ও পরীক্ষায় ফেল করে দেয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে পাঁচ ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে। গত ১৯ আগস্ট অভিযুক্ত শিক্ষক লিটন চন্দ্রের বিচার চেয়ে পাঁচ শিক্ষার্থী অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়।

পরদিন প্রতিষ্ঠানের উপাধ্যক্ষ মো. মির্জা ফিরোজ হাসানকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মাহাবুবুর রশিদ তালুকদার। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন, প্রতিষ্ঠানের চিফ ইনস্ট্রক্টর ইলেকট্রনিক্স মো. আরিফুর রহমান ও লাভলী ত্রিপুরা। অভিযুক্ত শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারকে ছুটিতে পাঠায় কর্তৃপক্ষ।

যৌন নিপীড়নের ঘটনায় অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয় লোকজনের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। ঘটনার পর মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন ওই শিক্ষার্থীরা। অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে দ্রুত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান স্থানীয় এলাকাবাসী।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

কম্বল দেওয়া হলো মেহেরুননেছা বৃদ্ধাশ্রমে

মো. রওশন আলম পাপুল, গাইবান্ধা প্রতিনিধি :: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ...