ব্রেকিং নিউজ

শরণখোলায় বাঁধ ভাঙন রোধে প্রার্থনা

বলেশ্বর নদীমোঃ শহিদুল ইসলাম, বাগেরহাট প্রতিনিধি :: বাগেরহাটের শরণখোলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৫/১ পোল্ডারের বাঁধ ভাঙ্গনরোধে গণ আযান ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (১২ অক্টোবর) বেলা ১২ টায় উপজেলার বগী গ্রামের ভাঙন কবলিত বাধের উপর দাড়িয়ে এলাকাবাসী গন আযান দেয়। আযানের পরে ভাঙ্গন রোধে মোনাজাত ও দোয়া পরিচালনা করেন ক্বারী মো. শহিদুল ইসলাম।মোনাযাতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসী, সাংবাদিক, গণ্যমান্য ব্যক্তি বর্গসহ ৩শতাধিক মানুষ অংশ নেন।

বলেশ্বর নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় গত মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বগী এলাকায় বেড়ি বাধের প্রায় ২‘শ মিটার ভেঙ্গে বিলীন হয়ে যায়। ভেঙ্গে যাওয়া স্থান থেকে জায়ারের পানি ঢুকে বগী ও চালিতাবুনিয়া গ্রামের অন্তত ২‘শ পরিবার পানি বন্দি হয়ে পড়ে। ভেসে যায় এসব গ্রামের পুকুর, মৎস্য ঘের ও নালায় পানি ঢুকে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

কাঁচা ঘরে পানি উঠে পড়ায় এদিকে শুক্রবার সকালে বাধ নির্মাণের দায়িত্বে নিয়োজিত কোস্টাল ইমব্যাংকমেন্ট ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট (সিইআইপি)-এর উদ্যোগে বস্তায় মাটি ভরে ভাঙন রোধের কাজ শুরু করেছে।তবে এলাকাবাসীর প্রশ্ন আছে কাজের ধরণ নিয়ে।

এলাকাবাসীর দাবি ভাঙ্গনর ঠেকাতে কনক্রিটের ব্লক ব্যবহার করা, যাতে করে স্থায়ীভাবে ভাঙ্গন রোধ হয়।সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য মো. রিয়াদুল পঞ্চায়েত বলেন, চারদিন পর ভাঙনরোধে কাজ শুরু হয়েছে। তারা মটির বস্তা ফেলে ভাঙ্গন ঠেকানোর চেষ্টা করছে। আসলে কনক্রিটের ব্লক না দিলে স্থায়ীভাবে ভাঙ্গন ঠেকানো সম্ভব নয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস বলেন, পানি কমতে শুরু করায় শুক্রবার সকাল থেকে পুরোদমে কাজ শুরু হয়েছে। প্রাথমিক অবস্থায় বস্তায় মাটি ভরে ভাঙ্গন কবলিত স্থানে ফেলা হচ্ছে। যাতে ঐ স্থান থেকে লোকালয়ে পানি না ঢুকতে পারে। স্থায়ীভাবে বাধ রক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খাগড়াছড়িতে পৌরবাসীর ঘরে ঘরে পৌঁছালো খাদ্য সামগ্রী

আল-মামুন, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:: মহামারী করোনা প্রতিরোধে ঘরে থাকা কর্মহীন পৌরবাসীর ঘরে ঘরে ...