ব্রেকিং নিউজ

লড়াই করে হারলো বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক :: নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লড়াই করে ২ উইকেটে হারলো বাংলাদেশ। টাইগারদের দেওয়া ২৪৫ রানের টার্গেট ১৭ বল বাকি থাকতে ২ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় কিউইরা। বিশ্বকাপে এটি কিউইিইদের এটি টানা দ্বিতীয় জয়।

ম্যাচটি শুরু হয় বাংলাদেশ সময় ৫ জুন (বুধবার) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। লন্ডনের ওভালে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৪৯.২ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে ২৪৪ রান করে টাইগাররা। পেন্ডুলামের মতো দুলতে থাকা ম্যাচটিতে ৮ উইকেটে ২৪৮ রান করে জিতে নিউজিল্যান্ড।

স্বল্প রানের টার্গেট হলেও নিউজিল্যান্ডের মনে ভয় ধরিয়ে দেয় টাইগাররা। দলীয় ৩৫ রানে কিউইদের ওপেনিং জুটি ভাঙেন সাকিব আল হাসান। ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা মার্টিন গাপটিলকে (২৫) রানে সাজঘরে ফেরান বিশ্বের এই সেরা অলরাউন্ডার। সাকিবের ঘূর্ণিতে ৫৫ রানে কলিন মুনরোকে (২৪) হারায় কিউইরা।

এরপর জুটি বাঁধেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও অভিজ্ঞ রস টেইলর। দু’জনের ১০৫ রানের জুটি জয়ের ভিতটা শক্ত করে নিউজিল্যান্ডের। তবে এক ওভারে উইলিয়ামসন (৪০) ও টম লাথামকে (০) রানে আউট করে ম্যাচ বাংলাদেশের দিকে নিয়ে আসেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

কিন্তু গলার কাঁটা হয়ে থাকেন টেইলর। অবশেষে তাকে ব্যক্তিগত ৮২ রানে ফেরান মোসাদ্দেক হাসান সৈকত। এরপর জেমস নিশাম (২৫), কলিন ডি গ্রান্ডহোমের (১৫) দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে এগোতে থাকে নিউজিল্যান্ড। শেষ দিকে দুজনকে ফিরিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলে মাশরাফির দল। কিন্তু শেষ রক্ষাটা হয়নি। মিচেল স্যান্টনারের অপরাজিত ১৭ রানের সুবাদে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় কিউইরা।

বাংলাদেশের হয়ে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন সাকিব, সাইফউদ্দীন, মোসাদ্দেক ও মিরাজ।

এর আগে ওপেনিং জুটিতে শুভ সূচনা এনে দেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার।

ভয়ঙ্কর হয়ে উঠার আগে দলীয় ৪৫ রানে সৌম্যকে বোল্ড করেন ম্যাট হেনরি। ২৫ বলে ২৫ রান করেন তিনি।স্কোরবোর্ডে ৬০ রান উঠতেই তামিমকে (২৪) হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ। লকি ফার্গুসনের বলে ট্রেন্ট বোল্টকে ক্যাচ দেন এই ড্যাশিং ওপেনার।

তবে গত ম্যাচের মতো এবারও দলের হাল ধরেন সাকিব এবং মুশফিকুর রহীম। দু’জনের ৫০ রানের জুটি ভাঙে ভুল বুঝাবুঝিতে। সিঙ্গেল নিতে গিয়ে রান আউটের শিকার হোন মুশফিক (১৯)। সাকিব-মুশফিক জুটিতে বাংলাদেশ পার করে দেড়’শ রান।

স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে ব্যাটিং করে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ২০০তম ম্যাচ খেলতে নেমে ৪৪তম হাফসেঞ্চুরি করেন সাকিব। ২০১৯ বিশ্বকাপে এটি তার টানা দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি। কিন্তু ক্রিজে থিতু হয়েও লাথামের বলে সাকিব ক্যাচ দিয়ে বসেন ডি গ্রান্ডহোমকে। তার ৬৮ বলে ৬৪ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৭ চারে।

এরপর টাইগারদের আর কেউ তেমন আশা জাগানিয়া ব্যাট করতে পারেনি। ভরসা হিসেবে থাকা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৪১ বলে ২০ রান করে ফিরেন স্যান্টনারের বলে। তার আগে ২৬ রান করে ফিরে যান মোহাম্মদ মিঠুন।

ছোট ছোট জুটি গড়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পথে মোসাদ্দেককে (১১) আউট করেন ট্রেন্ট বোল্ট। তবে ঝড় তুলেন আটে নামা মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। ২৩ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ২৯ রান করেন তিনি।

শেষদিকে দ্রুত রান তুলতে গিয়ে ফিরে যান মিরাজ (৭), মাশরাফি বিন মর্তুজা (১)। শূন্য রানে অপরাজিত ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ৯.২ ওভার বল করে ৪৭ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন হেনরি। বোল্ট নিয়েছেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট ভাগাভাগি করে নেন লকি ফার্গুসন, গ্রান্ডহোম ও স্যান্টনার।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন রস টেইলর।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের উদ্বোধনী ম্যাচ জিতল নাজমুল একাদশ

অনলাইন ডেস্ক : নাজমুল একাদশকে খুব বড় লক্ষ্য দিতে পারেনি মাহমুদউল্লাহ একাদশ। ...