ডেস্ক রিপোর্ট::  রিয়াল মাদ্রিদ তাদের রেকর্ড ৩৬তম লা লিগা শিরোপার পথে বেশ ভালোভাবেই ছুটছে। নিজেদের শীর্ষ তারকাদের ছাড়াই জয় তুলে নিয়েছে মায়োর্কার বিপক্ষে। ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রদ্রিগো, টনি ক্রুসের মতো খেলোয়াড়দের বেঞ্চে বসিয়ে মায়োর্কার বিপক্ষে দলকে খেলিয়েছিলেন কার্লো অ্যানচেলত্তি। তাতে রিয়াল জিতেছে ১-০ গোলে।

মূল তারকাদের বিশ্রামে রেখেছিলেন পরের সপ্তাহে ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ মাথায় রেখে। তাতে অবশ্য কিছুটা কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে রিয়ালকে। মায়োর্কার মত নিচু সারির দলের বিপক্ষেও শুরুর দিকে খাবি খেতে হয়েছে লস ব্লাঙ্কোসদের। আন্দ্রেয়া লুনিনের দৃঢ়তায় লিড পাওয়া হয়নি মায়োর্কার। নয়ত কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে অ্যান্তোনিও রাইয়োর হেড লিড দিতে পারত মায়োর্কাকে।

তবে রিয়াল যে সুযোগ পায়নি তা না। প্রথমার্ধেই জ্যুড বেলিংহ্যামের দুর্দান্ত এক শট ক্রসবার কাঁপিয়ে ফিরে আসে। বিরতির পরে যদিও ঠিকই সুযোগ কাজে লাগিয়েছে রিয়াল। ৪৮ মিনিটে দূরপাল্লার শটে রিয়ালের জয়সূচক গোলটি করেছেন অরেলিঁয়ে চুয়ামেনি। শেষ পর্যন্ত চুয়ামেনির সেই গোলই হয়ে থাকল জয়ের ব্যবধান।

জয়ের পরে ঘণ্টাখানেকের জন্য লিগে নিজেদের লিড ১১ পয়েন্টে নিয়ে গিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু সেটা আবার আটে নামিয়ে এনেছে বার্সেলোনা। কষ্টার্জিত এই জয়ের কারিগর ছিলেন পর্তুগিজ তারকা হোয়াও ফেলিক্স। তার দুর্দান্ত ওভারহেড কিকে ১-০ গোলে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা।

কাদিজের মাঠে বল দখলে যথারীতি দাপট দেখিয়েছে বার্সা। লেভানডফস্কি, ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ংসহ একাধিক তারকা এই ম্যাচে পেয়েছেন বিশ্রাম। যে কারণে গোলের সুযোগ তৈরিতেও খানিক পিছিয়ে গিয়েছে জাভি হার্নান্দেজের দল। তবে ম্যাচের ৩৭ মিনিটে ঠিকই গোল পেয়ে যায় বার্সা। কর্নার থেকে বল পেয়ে দুর্দান্ত এক ওভারহেড কিকে বল জালে জড়ান পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড ফেলিক্স।

এই নিয়ে টানা ১৩ ম্যাচে অপরাজিত থাকল কাতালান ক্লাবটি। কোচ জাভি চাকরি ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর থেকেই এই জয়ের ধারা শুরু করেছে বার্সা। জানুয়ারির পর থেকেই আর হারতে হয়নি তাদের। যদিও সামনেই বড় দুই ম্যাচ আছে তাদের। আগামী রোববার রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে আছে মর্যাদার এল-ক্লাসিকো। এরপরেই আছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ।

এ জয়ের পরও লা লিগার শীর্ষস্থানের সঙ্গে ব্যবধান কমছে না বার্সার। শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৩১ ম্যাচে ৭৮ আর সমান ম্যাচে দুইয়ে থাকা বার্সার পয়েন্ট ৭০।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here