ব্রেকিং নিউজ

লক্ষ্মীপুরে হতদরিদ্রদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে সরকারি বরাদ্দের ত্রাণ সামগ্রী

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: সরকারি নির্দেশনা মেনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে লক্ষ্মীপুরে বাড়িতে অবস্থান করা নিন্ম আয়ের মানুষের মাঝে সরকারি বরাদ্দের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়েছে। হতদরিদ্র পরিবার গুলোর খাদ্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় চাহিদা মেটাতে সরকারের এমন কর্মসূচি বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা।

সরকারি ত্রাণ সহয়তায় প্রাথমিকভাবে প্রতিটি পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে ১০ কেজি চাল, ১ কেজি মসুর ডাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পেঁয়াজ, ৫০০ গ্রাম সরিষার তেল ও একটি সাবান দেওয়া হচ্ছে। জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে এসব সামগ্রী প্যাকিং করা হয়। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে দরিদ্র পরিবার গুলোর তালিকা করে তালিকা অনুযায়ী তাদের ঘরে ঘরে ত্রাণ সামগ্রী গুলো পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় মানবিক সহায়তা হিসেবে জেলায় প্রায় ৬০০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। এরমধ্যে ১০০ মেট্রিক টন চাল ও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়। প্রয়োজনে পর্যায়ক্রমে বাকি ৫০০ মেট্রিক টন চাল ও ৭ লাখ ৪৯ হাজার টাকা জেলা প্রশাসকের ত্রাণ তহবিল থেকে দেয়া হবে। ইতোমধ্যে জেলার ৫টি উপজেলার সবকটি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ত্রাণের ৭২ মেট্রিক টন চাল ও ৮ লাখ ২০ হাজার টাকার নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

এদিকে রবিবার দুপুরে জেলা কালেক্টরেট ভবন প্রাঙ্গণে ভিক্ষুক, দিনমজুর ও রিকশাচালকসহ নি¤œআয়ের শতাধিক মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল। এই মানুষ গুলো অভাবের তাড়নায় রাস্তায় বের হয়েছিল। পরে জেলা প্রশাসক তাদেরকে ডেকে এনে তাদের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিয়ে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত পুনরায় বাড়ি থেকে বের না হওয়ার আহ্বান জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভূঁইয়া, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শাহীদুল ইসলাম, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. মাহফুজুর রহমান, এনডিসি বনি আমিন প্রমুখ।

জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল বলেন, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় লক্ষ্মীপুর জেলার সার্বিক পরিস্থিতি এখন পর্যন্ত ভালো রয়েছে। এই দুর্যোগে মানবিক সহায়তা হিসেবে জেলার হতদরিদ্র পরিবার গুলোর মাঝে ত্রাণ সামগ্রী যথাযথভাবে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এতে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা নিরলসভাবে কাজ করছেন।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে চলমান সংকট কাটিয়ে ওঠা পর্যন্ত ঘরে থাকুন। সামাজিক ও নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় এই সংকট মোকাবেলা করা সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এদিকে করোনা মোকাবেলায় লক্ষ্মীপুরে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ইতিমধ্যে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন লক্ষ্মীপুর সদর-৩ আসনে সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহার কামল, পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামন, লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র আবু তাহের, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুর রিদোয়ান আরমান শাকিল, রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান, রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরীন চৌধুরী, রায়পুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মারুফ বিন জাকারিয়াসহ রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের অনেকেই।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ভোলার ইলিশা ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার :: জন অংশীদারিত্বে টেকসই উন্নয়ন এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে ...