জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আহমদ উল্যা নামে (৬৫) এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৪ জনের মৃত্যু হলো। মঙ্গলবার দুপুরে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহমদ উল্যা মারা যান। সকালে আহমদ উল্যাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি সদর উপজেলার দালাল বাজার এলাকার বাসিন্দা। এর আগে করোনা পজিটিভ হয়ে নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেটেডে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এদিকে দিনদিন বেড়েই চলেছে লক্ষ্মীপুরে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরো ২৪ জন। এনিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১১২১ জনে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত সদর উপজেলায়।

এই উপজেলায় এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬২৭ জনে। এদিকে নতুন আক্রান্ত ২০ জন সদর উপজেলার, তিনজন রায়পুর উপজেলার ও একজন রামগঞ্জ উপজেলার উপজেলার বাসিন্দা। জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১১২১ জনের মধ্যে ৭১৬ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বাকি ৩৮১ জন রোগী হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ড ও হোম আইসোলেটেডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মঙ্গলবার বিকালে লক্ষ্মীপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় ৬৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে ৪০ জনের। আর পজেটিভ আসে ২৪ জনের। লক্ষ্মীপুরে সর্বমোট ১১২১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে সদরে ৬২৭ জন, রামগঞ্জে ১৭৩ জন, রায়পুরে ১০০ জন, কমলনগরে ১৫৩ জন ও রামগতিতে ৬৮ জন রয়েছেন। জেলায় এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭১৬ জন। তাদের মধ্যে সদরে প্রশাসনিক কর্মকর্তা, সাংবাদিক, পুলিশসহ ৩৬২ জন, রামগঞ্জে চিকিৎসক, সাংবাদিক, পুলিশসহ ১৩০ জন, কমলনগরে চিকিৎসক ও নারী-শিশুসহ ১০৬ জন, রামগতিতে জনপ্রতিনিধি, পুলিশসহ ৩৫ জন এবং রায়পুরে জনপ্রতিনিধি, পুলিশসহ ৮৩ জন। জেলার সদর উপজেলায় দুইজন ও রামগঞ্জ উপজেলায় একজন শনাক্ত হওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা পজেটিভ রোগী মারা যায়।

এছাড়া রামগঞ্জ উপজেলায় আটজন, সদর উপজেলায় নয়জন, রায়পুর উপজেলায় দুইজন, রামগতি উপজেলায় একজন ও কমলনগর উপজেলায় একজন মৃত ব্যক্তির করোনা পজিটিভ আসে।

এদিকে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে সকলকে স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ পূর্বক সতর্কতার সহিত জীবনাচার অনুশীলন করার অনুরোধ জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here