লক্ষ্মীপুরে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা: যাত্রীদের দুর্ভোগ

লক্ষ্মীপুরে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা, যাত্রীদের দুর্ভোগ

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: বেতন-ভাতা বাড়ানো ও নদীপথে চাঁদাবাজি বন্ধসহ ১১ দফা দাবিতে লক্ষ্মীপুরে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছে নৌযান শ্রমিকরা। এতে লক্ষ্মীপুরের মজুচৌধুরীর হাট নৌ ঘাট থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে লক্ষ্মীপুরে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন নৌযান শ্রমিকরা। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- নৌপথে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও ডাকাতি বন্ধ, ২০১৬ সালের ঘোষিত বেতন স্কেলের পূর্ণ বাস্তবায়ন, ভারতগামী শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাস দেওয়া ও হয়রানি বন্ধ, নদীর নাব্যতা রক্ষা, নদীতে প্রয়োজনীয় মার্কা, বয়া ও বাতি স্থাপন।

অনির্দিষ্টকালের এ ধর্মঘটের ফলে মঙ্গলবার সকাল থেকে লক্ষ্মীপুর নৌপথে অবস্থানরত কোনো জাহাজ চলাচল করছেনা। জাহাজ থেকে পণ্য খালাসের কাজও রয়েছে বন্ধ। এদিকে ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকে কোনো নৌযান লক্ষ্মীপুরের মজুচৌধুরীর হাট ঘাট ত্যাগ করেনি। নৌযানগুলো মাঝনদীতে নিয়ে নোঙ্গর করে রাখা হয়েছে।

ফলে এই রুটে চলাচল করা যাত্রীদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। যাত্রী ও পন্যবাহী যানবাহন গুলোকে ঘন্টার পর ঘন্টা ঘাটে অপেক্ষে করতে দেখা গেছে। লক্ষ্মীপুরের মজুচৌধুরীর লঞ্চ ঘাট থেকে দেশের দক্ষিনাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ চলাচল করে। তাদের একমাত্র যাওয়ার পথ এ নৌ-রুট দিয়ে।

যাত্রী আনোয়ার হোসেন ও নাজমা বেগম জানায়, হঠাৎ ধর্মঘটে বেকাদায় পড়েছেন তারা। লঞ্চ না ছাড়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে চরম বিপাকে পড়তে হয়েছে তাদের। পাশাপাশি ঘাটে ভালো কোন খাবার হোটেল ও টয়লেট না থাকায় আরো বড় ধরনের দুভোর্গের শিকার হতে হচ্ছে তাদের।

নৌযান শ্রমিক হেদায়েত উল্যা ও আবুল ফয়েজ জানান, কেন্দ্রের ডাকা ধর্মঘট লক্ষ্মীপুরে সর্বাত্মকভাবে পালিত হচ্ছে। নিরাপত্তা ও নদীপথে চাঁদাবাজি বন্ধসহ ১১ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের কর্মবিততি চলবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

লক্ষ্মীপুরের নতুন এসপি

ড. এএইচএম কামরুজ্জামান লক্ষ্মীপুরের নতুন এসপি

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরের নতুন এসপি হিসেবে যোগদান করবেন ...