লক্ষ্মীপুরের পাঁচটি সংবাদ

 

লক্ষ্মীপুরে শিক্ষকের লাথিতে ছাত্র হাসপাতালে

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (টিটিসি) এক শিক্ষকের লাথিতে ছাত্র মো. রায়হান খন্দকার (১৬) কোমরে আঘাত পেয়ে অচেতন হয়ে পড়ে। মঙ্গলবার দুপুরে সদর উপজেলার খিলবাইছা এলাকায় টিটিসির ইলেকট্রিক্যাল ট্রেডের শ্রেণিকক্ষে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই শিক্ষক প্রিয় গোবিন্দ নামে আরও এক ছাত্রকে লাথি মারেন বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম শামছুল আলম।
আহত রায়হান ইলেট্রিক্যাল ট্রেডের দশম শ্রেণির ছাত্র ও সদর উপজেলার বিজয়নগর এলাকার সিরাজ উল্যা খন্দকারের ছেলে। অভিযুক্ত শামছুল আলম ওয়েল্ডিং ট্রেডের সিভিল ইন্সট্রাক্টর।

শিক্ষার্থীরা জানায়, দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মাসিক মূল্যায়ন পরীক্ষা চলছে। ঘটনার সময় ওই শিক্ষক প্রশ্নপত্র নিয়ে শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করেন। ফ্যানের (পাখা) রেগুলেটর বাড়ানোর জন্য রায়হান বৈদ্যুতিক বোর্ডে হাত দেয়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই শিক্ষক শামছুল ছাত্র রায়হানের কোমরে লাথি মারে। এতে সে অচেতন হয়ে পড়ে। ওই শিক্ষকের পায়ে বুট জুতা ছিল। রায়হানকে উদ্ধার করতে গেলে সহপাঠি প্রিয় গোবিন্দকেও শিক্ষক লাথি মারেন। খবর পেয়ে অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা রায়হানকে উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এরআগেও ওই শিক্ষকের হাতে কয়েকজন শিক্ষার্থী মারধরের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে।

এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মাহবুবুর রশিদ তালুকদারের মোবাইল ফোনে কয়েকবার কল দিয়েও সাড়া পাওয়া যায়নি। অভিযুক্ত শিক্ষকের সঙ্গেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।
লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে হাইকোর্টের রায়ে বলা হয়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শারিরীক শাস্তি শিশুদের জীবন ও ব্যক্তি স্বাধীনতার সাংবিধানিক অধিকার লঙ্গন করে এবং তা নিষ্ঠুর, অমানবিক, অপমানকর আচরণ।

 

রামগতিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আবদুল খালেক (৫০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার চর বাদাম ইউনিয়নের চরসীতা গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খালেক ওই ইউনিয়নের কারামতিয়া এলাকার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে গাছ কাটার সময় অসাবধানতাবশত পল্লীবিদ্যুতের তারের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন শ্রমিক খালেক। এতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে রামগতি ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনে ঝুলে থাকা আবদুল খালেকের মরদেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয় চর বাদাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন জসিম বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আবদুল খালেকের মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

রামগঞ্জে গাছ থেকে পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলায় সুপারি গাছ থেকে পড়ে মানিক হোসেন (৫০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের মাসিমপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মানিক ওই গ্রামের কামার বাড়ির বাসিন্দা।

চন্ডিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন ভূঁইয়া বলেন, দুপুরে স্থানীয় আবদুল মতিন পাটোয়ারীর বাগানের সুপারি গাছ থেকে সুপারি পাড়ছিলেন মানিক। এ সময় হঠাৎ গাছ ভেঙে তিনি নিচে পড়ে যান। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

রামগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত ফজলুল হক জানান, এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্থান্তার করা হয়েছে।

 

লক্ষ্মীপুরে পাঁচ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী খালেক গ্রেফতার

লক্ষ্মীপুরে কমলনগর উপজেলা থেকে পাঁচ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. আবদুল খালেককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্প। মঙ্গলবার রাতে এক প্রেস রিলিজের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১১ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের স্কোয়াড কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার মো. আবু ছালেহ। গ্রেফতারকৃত আবদুল খালেক কমলনগর উপজেলার চরফলকন ইউনিয়নের বসর উদ্দিন পালোয়ান বাড়ির মকবুল আহম্মদের ছেলে।

স্কোয়াড কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার মো. আবু ছালেহ জানান, কমলনগর উপজেলার হাজির হাট এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে খালেক এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় চরফলকন ইউনিয়নের বসর উদ্দিন পালোয়ান বাড়ি থেকে আবদুল খালেককে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার কাছ থেকে পাঁচ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারতৃক আবদুল খালে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

 

রামগঞ্জে ১০ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটক

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে চতুর্থ শ্রেণীর ১০ বছরের এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. রুবেল হোসেন (২৫) নামের এক ধর্ষককে আটক করেছে রামগঞ্জ থানা পুলিশ। আটককৃত রুবেল হোসেন উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের দেহলা গ্রামের মিঝি বাড়ির আনোয়ার হোসেন প্রকাশ হোসেন আহম্মেদের ছেলে।

রামগঞ্জ থানা পুলিশ ও থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়, রবিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের দেহলা গ্রামের জসিম উদ্দিন পাটোয়ারী বাড়ির স্কুল ছাত্রী (১০) বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তায় আসার পর বখাটে মো. রুবেল হোসেন স্কুলছাত্রীর পথরোধ করে। পরে জোরপূর্বক মিঝি বাড়ির মাষ্টারের সুপারি বাগানে নিয়ে মুখচাপা দিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।
ঘরে এসে মেয়েটি অসুস্থ্য হয়ে পড়লে মাকে ঘটনাটি খুলে বলে। মা লোকলজ্জার ভয়ে ঘটনাটি কাউকে না বলে ঘরে চিকিৎসা দেয়ার ব্যবস্থা করলে স্কুল ছাত্রীর শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে বিষয়টি জানাজানি হয়ে পড়ে। পরদিন সোমবার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সহযোগীতায় স্কুল ছাত্রীর মা রামগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।

সোমবার গভীর রাতে রামগঞ্জ থানার এস আই মহসিন চৌধুরী, এস আই আবদুস সাত্তারসহ একদল পুলিশ দেহলা গ্রামের একটি বাড়ি থেকে ধর্ষক রুবেল হোসেনকে আটক করে।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, ধর্ষক যেন পালিয়ে যেতে না পারে সে কারনে আমরা খুব গোপনে বিষয়টি তদন্ত করে ধর্ষক রুবেল হোসেনকে আটক করেছি। তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে রুবেল হোসেনকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অনুদানের চেক পেল ৫৪ টি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: বাংলাদেশ মহিলা কল্যাণ পরিষদের অনুমোদন ক্রমে ...