ব্রেকিং নিউজ

রাত পোহালেই ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মুখোমুখি

messi-neymarনেইমারের ব্যক্তিগত বিমানে চড়ে ব্রাজিলে এসেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কেবল মেসিই নন, নেইমারের সঙ্গে বিমানে ছিলেন মাসকারেনোও। দুই বন্ধুকে বিমানে করে ব্রাজিলে এনে কি ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক নেইমার কিছুটা ভুলই করলেন? আগামীকাল ভোর পৌনে ৬টায় তো এ দুজন নেইমারের সবচেয়ে বড় শত্রুতে পরিণত হতে যাচ্ছেন!

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ফুটবল যুদ্ধটা এখনো কি আগের মতোই ক্ল্যাসিক রয়ে গেছে, নাকি ভক্তরা আন্তর্জাতিক ফুটবলের ‘সুপারক্ল্যাসিকো’ নিয়ে এখন আর তেমন উৎসাহী নন? এ প্রশ্নের জবাব দেওয়ার প্রয়োজন নেই। ভার্চুয়াল জগতে আগ্রহটা দেখলেই বোঝা যায়। ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ভক্তরা এরই মধ্যে পক্ষে-বিপক্ষে তুমুল বিতর্ক শুরু করে দিয়েছেন। আর্জেন্টাইনদের দাবি, এবার ব্রাজিলকে ৩-১ গোলে হারাবেন মেসিরা। নেইমারভক্তদের দাবিটা ঠিক তার উল্টো। তবে এসব দাবি-দাওয়ার মধ্যে আর্জেন্টিনার সামনে এক চরম বাস্তবতা দেখা দিয়েছে। রাশিয়া বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব পাড়ি দেওয়ার জন্য বেলো হরিজন্তের মাঠে আগামীকালের ম্যাচে জয় পাওয়াটা খুব জরুরি মেসিদের। বলিভিয়াকে দেওয়া শাস্তির শিকার আর্জেন্টিনা পয়েন্ট তালিকার অনেকটা নিচে নেমে গেছে। ১০ ম্যাচে আলবেসিলেস্তরা ১৬ পয়েন্ট সংগ্রহ করে তালিকার ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় চিলির অবস্থান পঞ্চমে। আর ব্রাজিল ১০ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট সংগ্রহ করে তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জিতলে সিলেকাওদের বিশ্বকাপ মোটামুটি নিশ্চিত হয়ে যাবে! তবে ইনফর্ম মেসিকে নিয়ে আর্জেন্টিনা দল এখন অনেক শক্তিশালী। গত ৯৮টি লড়াইয়ে দুই দলই জিতেছে ৩৬টি করে ম্যাচ। ড্র হয়েছে ২৪টি। আজ সুপারক্ল্যাসিকোর লড়াইয়ে এগিয়ে যেতে মাঠে নামবে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা।

লিওনেল মেসিকে দীর্ঘদিন ধরে জানেন দানি আলভেস। বার্সেলোনায় দুজনের মধ্যে বোঝাপড়াটা ছিল দারুণ। মেসির অনেক গোলেই রয়েছে আলভেসের অ্যাসিস্ট। আর নেইমার তো মেসিকে গুরু বলেই মানেন। তার পরও আর্জেন্টিনাকে মোটেও ভয় পাচ্ছে না ব্রাজিল। বরং ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে বেলো হরিজন্তে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে পরাজয়ের যে দুঃখ ভক্তরা পেয়েছিলেন, তা মোচন করতেই মরিয়া ব্রাজিল। আলভেস বলছেন, ‘প্রতিপক্ষের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে। তবে আমরা দারুণ একটা ম্যাচই উপহার দিতে যাচ্ছি।’ এদিকে ল্যাটিন অঞ্চলের বাছাই পর্বে মুখোমুখি হচ্ছে কলম্বিয়া-চিলি, উরুগুয়ে-ইকুয়েডর, প্যারাগুয়ে-পেরু ও ভেনেজুয়েলা-বলিভিয়া। উরুগুয়ে ২০ পয়েন্ট নিয়ে ২, ইকুয়েডর ১৭ পয়েন্ট নিয়ে ৩ ও কলম্বিয়া ১৭ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে ৪ নম্বরে অবস্থান করছে।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মাঠে নেমেই ফিফা র‍্যাঙ্কিং ৩ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্ট :: মহামারির কারণে দীর্ঘদিন বন্ধের পর বাংলাদেশের ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) ...