বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক থেকে :: জাতিসংঘে বাংলাদেশের পূর্ণ সদস্যপদ লাভের ৪৬ বছর পূর্তি উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের এক সমাবেশে রাজাকার সমস্যা নিয়ে হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনে আনন্দ-সমাবেশ করতে গেলে দলে রাজাকারের অনুপ্রবেশ এর বিষয়কে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদকের সাথে যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হট্টগোল সৃষ্টি হয়। উত্তেজনাকর পরিস্থিতেতে পুলিশি উপস্থিতিতে পরিবেশ শান্ত হয়।
.
জাতিসংঘের সামনে আনন্দ সমাবেশ শেষে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন দেওয়ান সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানকে উদ্দেশ করে বলেন, রাজাকার এবং বেসিক সদস্য কেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে। সিদ্দিকুর রহমানকে আগেই জানিয়ে দেয়া হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতৃত্বে কেন জামাত এবং রাজাকার। এমনকি তার সদস্য নম্বরসহ (৪৪০) প্রমাণনাদি সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানকে দেয়া হয়েছিল এক মাস পূর্বে। তারপরেও বেসিকের ওই সদস্য উপস্থিত হয় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সমাবেশে। তাকে দেখেই সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানকে প্রশ্ন করেন মহিউদ্দিন দেওয়ান। তাকে বক্তব্য দেয়ার জন্য ডাকা হলেও তিনি অন্য দিকে চলে যান। মহিউদ্দিন দেওয়ান প্রশ্ন করার সাথে সাথেই অঙ্গসংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নূরুজ্জামান সরদার উত্তেজিত হয়ে বলেন জালিয়াত এবং চোরও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগে থাকতে পারবে না। এটা শুনেই প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন মহিউদ্দিন দেওয়ান। এক পর্যায়ে দুইজনের কথা কাটাকাটি এবং অশ্লীল গালাগালিতে লিপ্ত হয়। পরে পুলিশি উপস্থিতিতে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আসে। এ ব্যাপারে মহিউদ্দিন দেওয়ানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।
.
স্বেচ্ছাসবেক লীগের সভাপতি নূরুজ্জামান সরদার বলেন, আমি বেসিকের সদস্য নই। এটা মহিউদ্দিন দেওয়ানের সৃষ্টি। তিনি যদি নিজে টাইপ করে চিঠি তৈরি করেন, তাতে আমার কিছুই করার নেই। তিনি আরো বলেন, গত ২০ বছর ধরে আমি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। তিনি বলেন, জাতিসংঘের সামনে মহিউদ্দিন দেওয়ান আমাকে এবং আমার পরিবারকে গালাগাল করলে আমি তার প্রতিবাদ করি।
.
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সভাপতিত্বে এবং সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের সঞ্চালনায় স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মিরা বক্তব্য দেন। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা শামছুদ্দিন আজাদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান, আব্দুল হাসিব মামুন, দুলাল মিয়া (হাজী এনাম), মোহাম্মদ সোলায়মান আলী, শাহানারা রহমান, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা নুরুজ্জামান সরদার, সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া জামান, কামাল হোসেন রাকিব,  লিটন ও হুমায়ূন কবির প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here