রাজস্ব বোর্ড চেয়ারম্যানের কাছে তামাক পণ্যের উপর কর বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছে সুপ্র

সুপ্র

ঢাকা :: সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান-সুপ্র, প্রত্যাশা, এসিডি, ইপসা ও তামাক বিরোধী বিভিন্ন সংগঠনসমূহ সপ্তাহব্যাপী জেলা ও জাতীয় পর্যায়ে “দাম বাড়ান তামাকের, জীবন বাঁচান আমাদের: ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশ,তামাকের দিন শেষ” শীর্ষক গণসাক্ষর, র‌্যালী ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচি সম্পন্ন করার পর মঙ্গলবার (০৭ মে) তামাকের মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এর চেয়ারম্যানের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন সংগঠনসমূহ।

স্মারকলিপিতে আসন্ন ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেটে সকল তামাকজাত পণ্যের উপর কর বৃদ্ধি এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক একটি শক্তিশালী তামাক শুল্ক-নীতি গ্রহণ ও বাস্তবায়নের দাবি জানানো হয়।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন সুপ্র ভাইস চেয়ারপার্সন মঞ্জু রাণী প্রামাণিক, সুপ্র প্রকল্প সমন্বয়কারী মোহাম্মদ হাসনাইন, প্রত্যাশা মাদক বিরোধী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. হেলাল আহমেদ ও ঢাকা আহ্‌ছানিয়া মিশনের প্রতিনিধি।

তামাক ব্যবহারের কারণে বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় ১ লক্ষ ৬১ হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করে এবং পঙ্গুত্ব বরণ করে প্রায় ৪ লক্ষ মানুষ। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে তামাক ব্যবহারের অর্থনৈতিক ক্ষতির (চিকিৎসা ব্যয় এবং উৎপাদনশীলতা হারানো) পরিমাণ ছিল ৩০ হাজার ৫৬০ কোটি টাকা যা একই সময়ে (২০১৭-১৮) তামাকখাত থেকে অর্জিত রাজস্ব আয়ের (২২ হাজার ৮১০ কোটি টাকা) চেয়ে অনেক বেশি।

প্রস্তাবসমূহ :

১. সিগারেটের ক্ষেত্রে বিদ্যমান ৪টি মূল্যস্তর (৩৫ টাকা, ৪৮ টাকা, ৭৫ টাকা এবং ১০৫ টাকা) বিলুপ্ত করে ২টি মূল্যস্তরে (৫০ টাকা এবং ১০৫ টাকা তদূর্ধ্ব) নিয়ে এসে ৬৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ এবং সকল ক্ষেত্রে প্রতি ১০ শলাকা সিগারেটে ৫ টাকা সুনির্দিষ্ট সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা;

২. বিড়ির ফিল্টার এবং নন-ফিল্টার মূল্য বিভাজন তুলে দিয়ে ২৫ শলাকা বিড়ির খুচরা মূল্য ৩৫ টাকা নির্ধারণ করে ৪৫% সম্পূরক শুল্ক ও ৬ টাকা সুনির্দিষ্ট সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা;

৩. গুল-জর্দার ক্ষেত্রে ট্যারিফ ভ্যালু প্রথা বিলুপ্ত করে সিগারেট ও বিড়ির ন্যায় ‘খুচরা মূল্যের’ ভিত্তিতে করারোপ করা এবং প্রতি ১০ গ্রাম জর্দার খুচরা মূল্য ৩৫ টাকা এবং প্রতি ১০ গ্রাম গুলের খুচরা মূল্য ২০ টাকা নির্ধারণ করে ৪৫% সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা এবং প্রতি ১০ গ্রাম জর্দার উপর ৫ টাকা ও প্রতি ১০ গ্রাম গুলের উপর ৩ টাকা সুনির্দিষ্ট সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা;

৪. একটি সহজ এবং কার্যকর তামাক শুল্কনীতি প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করা, যা তামাকের ব্যবহার হ্রাস এবং রাজস্ব বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে।– প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মেঘনা বাঁধে আরএসসিডি পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান

মেঘনা বাঁধে আরএসসিডি পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান

রামগতি প্রতিনিধি :: “আমার শহর, রাখি পরিষ্কার” “বীচের সৌন্দর্য রক্ষা করুন যেখানে ...