রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহত ও অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের রংপুর  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বুধবার ভোরে নগরীর নজিরের হাটে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চিশতিয়া পরিবহনের একটি কোচ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে পুকুরে পড়ে গেলে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে তাৎক্ষণিকভাবে চারজনের পরিচায় পাওয়া গেছে। এরা হলেন, নগরীর বাবুপাড়ার আসাদ (৪৫), পানবাড়ির রেজাউল ইসলাম (৪৫), বদরগঞ্জের কফিল উদ্দিন (৫০) ও সাদেক (৪৫)। তারা সবাই তাবলিগ জামাতের মুসল্লি।

নিহত ও আহতদের সবার বাড়ি বদরগঞ্জ ও পানবাড়ি এলাকায় বলে জানিয়েছে আহত যাত্রীরা।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঢাকা থেকে তাবলিগ জামায়াতের মুসল্লিদের নিয়ে বদরগঞ্জে যাচ্ছিল চিশতিয়া পরিবহনের একটি কোচ (ঢাকা মেট্রো-ব-১১-১১৩৭)।

গাড়িটি রংপুর-বদরগঞ্জ সড়কের নজিরের হাটে ব্র্যাক অফিসের পাশে ঘন কুয়াশারার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে পুকুরে উল্টে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন মারা যায়।

আহতদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নিয়ে গেলে সেখানে আরো দুজন মারা যায়।

কোতোয়ালি থানার এএসআই সেলিম হায়দার জানান, বাসের ভেতরে ও ছাদ মিলিয়ে ৮৬ জন যাত্রী ছিল। অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে দ্রুত চালাতে গিয়েই চালক নিয়ন্ত্রণ হারায় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/রংপুর

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here