যৌনতায় অর্গাজম বা তৃপ্তি মেয়েদের শরীরে কতটা গুরুত্বপূর্ণ? জানেন কি?

hhপ্রকৃতি অন্যান্য প্রাণীদের মতোই প্রজননের বিষয়টি মাথায় রেখেই মানুষকে তৈরি করেছে। তাই যৌনতার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে শরীর-স্বাস্থ্যের একাধিক বিষয়। যেমন মেয়েদের জন্য অর্গাজম।

পুরুষ ও নারী, দু’জনের শরীরেই যৌনাঙ্গ তৈরি হয়েছে প্রাকৃতিক নিয়মেই। যৌনাঙ্গ এবং যৌনতার অবদান রয়েছে মানুষের স্বাস্থ্যের উপর। যেমন পুরুষদের ক্ষেত্রে নিয়মিত যৌনজীবন প্রস্টেট ক্যানসারের সম্ভাবনাকে কমায়, তেমনই নিয়মিত যৌনজীবন এবং ঘন ঘন অর্গাজম বা চরম তৃপ্তি মেনোপজ ত্বরান্বিত হতে বাধা দেয় এবং মেনোপজের পরেও নিয়মিত যৌনজীবনে সাহায্য করে।

সাধারণত মেনোপজের ফলে মেয়েদের শরীরে ইস্ট্রোজেনের পরিমাণ কমে যায়। এর ফলে যৌনাঙ্গে ফ্লুইডের পরিমাণ কমে যেতে থাকে যাকে বলে ভ্যাজাইনাল অ্যাট্রোফি বা ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেস। বিভিন্ন গবেষণা থেকে দেখা গিয়েছে যে সমস্ত মহিলারা মেনোপজের পরেও নিয়মিত সঙ্গম করেন অথবা হস্তমৈথুন করেন, তাঁদের মধ্যে ভ্যাজাইনাল অ্যাট্রফির সম্ভাবনা অনেক কম।

মোটামুটিভাবে ৪০ থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে মেনোপজ হয় বেশিরভাগ মেয়েদের। ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেসের জন্য অনেকেই এই সময় জীবন থেকে যৌনতাকে বাদ দেন। অধিকাংশ মেয়েই এর ফলে মারাত্মক ডিপ্রেশনে চলে যান।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বন্ধুর জন্য আকুতি,বন্ধুর জন্য ভালবাসা।

আমরা যখন ছোট, যখন অষ্টম বা নবম শ্রেণীতে পড়ি, তখন কি করতাম ...