অনলাইন ডেস্ক : আসন্ন আমেরিকা নির্বাচন ২০২০ উপলক্ষে বামপন্থী দলগুলোও বরাবরের মতো যুক্তরাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য দিয়েছে। এই দলগুলোর নেতাদের অনেকে মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক না কেন, বিশ্বে দেশটির ভূমিকার কোন পার্থক্য হবে না। এরপরও যুক্তরাষ্ট্রের এবারের নির্বাচন নিয়ে তাদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে। এ-বিষয়ে বিবিসি বাংলায় এক প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে ।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে ডানপন্থী রাজনীতি স্থায়ী হলে গোটা বিশ্বেই তার প্রভাব বাড়বে বলে তারা মনে করেন। আর সেজন্যই দেশটির এবারের নির্বাচনকে তারা গুরুত্বের সাথে পর্যবেক্ষণ করছেন বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

“সারাবিশ্বের রাজনীতির জন্যই আমেরিকার নির্বাচন এবং তার ফলাফল একটা বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। বিশ্ব বাস্তবতায় বর্তমানে যে অবস্থা বিরাজমান, তাতে আমেরিকা প্রধান সুপারপাওয়ার, যেটাকে তারা এককেন্দ্রিক বিশ্ব হিসাবে প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করেও সফল হয়নি। তারপরও বলা যায়, দুনিয়াজুড়ে তাদের সামরিক ঘাঁটি থেকে শুরু করে রাজনৈতিক প্রভাব এবং হস্তক্ষেপ ইত্যাদির ভেতর দিয়ে তারা পুঁজিবাদী বিশ্বের প্রধান পাহারাদার হযেছে। সেজন্য তাদের নির্বাচন নিয়ে সবার আগ্রহ দেখা যায়।

কমিউনিস্ট পার্টির নেতা সেলিম আরও বলেছেন, “যুক্তরাষ্ট্রে যদি ফ্যাসিবাদ বা বর্ণবাদের দিকে ধাবিত হয়, এবং উগ্র ডানপন্থীর দিকে বা হোয়াইট সুপ্রিম্যাসির দিকে ধাবিত হয়, তাহলে সেটা গোটা বিশ্বের জন্যই বিপদজনক অবস্থা সৃষ্টি করবে।”

দলগুলোর নেতাদের সাথে কথা বলে মনে হয়েছে, চীনকে ঠেকানোর লক্ষ্যে ভূ-রাজনীতিতে যুক্তরাষ্ট্র এখন যে কৌশল নিয়ে এগুচ্ছে – সে ব্যাপারে বাংলাদেশের সিদ্ধান্ত নেয়ার বিষয়টি সরকার বা আওয়ামী লীগের জন্য চ্যালেঞ্জ তৈরি করেছে।

কিন্তু আওয়ামী লীগ এবং বিএনপিসহ প্রভাবশালী সব দলই শেষপর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশের জন্য আরও ভাল সম্পর্কের প্রত্যাশা করছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here