যাত্রী ছাউনি দখল করে দোকান, ৫ হাজার টাকা জরিমানা

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  রাজধানীর গুলিস্তানে যাত্রী ছাউনি দখল করে দোকান বসানোর অভিযোগে এক দোকানদারকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)।

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গুলিস্তান জিরো পয়েন্ট এলাকায় অভিযানের সময় এই জরিমানা করেন ডিএসসিসির সম্পত্তি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান।।

তিনি বলেন, ওই দোকানদার যাত্রী ছাউনি দখল করে যাত্রীদের বসার জায়গায় দোকান পরিচালনা করছেন। এভাবে একজন দোকানদারের ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করা অন্যায়। তবে দোকানদার স্বীকারোক্তি দিয়েছেন ‘না বুঝে’ দোকান বসিয়েছেন। তাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে তাকে দোকানের কাগজপত্র নিয়ে রাজস্ব বিভাগে বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকাল দশটায় এসে কারণ দর্শানোর কথা বলা হয়েছে।

অভিযান শেষ হলেই হকারদের আবারও রাস্তা দখল প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাত ৮টা পর্যন্ত সিটি করপোরেশন এই এলাকায় অবস্থান করবে। এর মধ্যে যদি আবার হকাররা বসে যায়, তাহলে আমরা আবারও অভিযান শুরু করবো। তাদেরকে কোনোমতেই রাস্তা দখল করে দোকান বসাতে দেবো না।

এদিকে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের এই অভিযান শুরুর পর একজনকে জরিমানা করতেই হকাররা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এরপর সিটি করপোরেশনের অভিযান টিম স্থান ত্যাগ করে। এসময় হকাররা অভিযানবিরোধী স্লোগান দিতে থাকেন।

বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের উপদেষ্টা জলি তালুকদার বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে আমরা বলতে চাই, আপনি হকারদের বিষয়ে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, আশা করি সেই প্রতিশ্রুতি আপনি রাখবেন। যদি না রাখেন তাহলে আপনাদের কথাও আমরা রাখতে পারব না। আমাদেরকে যদি গায়ের জোরে জায়গা থেকে তুলে দিতে চান, তাহলে আমরা প্রতিরোধ গড়বো।

বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল হাসিম কবির বলেন, আমরা শুনেছি হকারদের জন্য মেয়র একটি মার্কেট নির্মাণ করছেন, তিনি বলেছেন ওখানে নাকি হকারদের জায়গা দেওয়া হবে। আমরা বলতে চাই, আপনারটা হবে নগদ আর আমাদেরটা হবে বাকি, এটা আমরা মেনে নেবো না।

তিনি বলেন, আপনারা মার্কেট করবেন সেখানে ৪ থেকে ৫ বছর সময় লাগবে, এই লম্বা সময়টা আমাদের হকাররা কোথায় যাবে? আজ আমাদের হকারদের ব্যবস্থা করবেন, তারপর আমরা জায়গা ছাড়বো। এখন আপনারা চাইলে পাঁচতলা মার্কেট করেন বা একশতলা বিল্ডিং করবেন, সেটা আপনাদের বিষয়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here