মোঃ আজিজুর রহমান ভূঁঞা বাবুল, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ::

ময়মনসিংহে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ সাতজনকে আটক করছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। এদের মধ্যে দুই নারীসহ পাঁচজনই রোহিঙ্গা নাগরিক। আটককৃতরা হলেন-রোহিঙ্গা নাগরিক মোঃ শাহেদ, নজরুল ইসলাম, খালেদা আক্তার, মোঃ তৈয়ব, আনোয়ারা আক্তার। আর আটক অন্য দু’জন হলেন-মোঃ নাজমুল হুদা ও ইলিয়াস কাদের বাবুল। পরে আটককৃতদের কাছ থেকে সাত হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৩৪ বোতল বিদেশি মদ এবং নগদ এক লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়।

ময়মনসিংহ বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের পরিদর্শক মোঃ খন্দকার নাজিম উদ্দিন এ ঘটনায় বাদী হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেছেন।

এ বিষয়ে শনিবার (২১ মে) জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক একে এম শওকত ইসলাম এ ব্যাপারে বলেন, ‘গতকাল শুক্রবার (২১ মে) সন্ধ্যার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার চরকালীবাড়ী এলাকা থেকে মাদকসহ তাদের আটক করা হয়। তারা পেটের মধ্যে নিয়ে ইয়াবা পাচার করত।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক একে এম শওকত ইসলাম এ ব্যাপারে আরো বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, প্রায় বছর খানেক আগে রোহিঙ্গা নারী রোজিনাকে বিয়ে করে ময়মনসিংহের চর কালিবাড়ি
এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করেন আটক ইলিয়াস কাদের বাবুল। এরপরই তিনি মাদক ব্যবসায় জড়ান।

রোজিনার মাধ্যমে তৈরি করেন একটি চক্র। সেই চক্রের মাধ্যমে টেকনাফ থেকে ইয়াবা আনা হতো ময়মনসিংহে। সেগুলো বাসায় মজুত করে দেশের বিভিন্ন জেলার মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করতেন। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজর এড়াতে স্থানীয়ভাবে তিনি কোনো মাদক ব্যবসায়ীর কাছে ইয়াবা ও বিদেশি মদ বিক্রি করতে না। নজরদারি ও গ্রেফতার এড়াতে এভাবে ব্যবসায়িক কৌশল নিয়ে এ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল এ সব মাদক ব্যবসায়ীরা বলেও জানান মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ময়মনসিংহ বিভাগীয় কার্যালয়ের অতিরিক্ত পরিচালক শওকত ইসলাম।

তিনি আরো বলেন, আটককৃতদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে এ চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে। এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।’

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here