ডেস্ক রিপোর্ট::  নরেন্দ্র মোদি টানা তৃতীয়বারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় খুব খুশি ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে। গতকাল সোমবার এক সাক্ষাৎকারে এ প্রসঙ্গে তোবগে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিজের পরামর্শদাতা ও গুরু বলে মনে করেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া সেই সাক্ষাৎকারে ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আমার সম্পর্ক খুবই ঘনিষ্ঠ এবং আন্তরিক। এ কারণে আমি সবসময়েই নিজেকে ধন্য মনে করি এবং এটা আমার সৌভাগ্য যে বিভিন্ন সময়ে নানা ইস্যুতে তিনি আমাকে পরামর্শ, দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। আমি তাকে আমার দিক নির্দেশক এবং গুরু হিসেবে বিবেচনা করি। তার যে ব্যাপারটি আমাকে সবচেয়ে আকর্ষণ করে, তা হলো— তিনি তার লক্ষ্য সম্পর্কে পরিষ্কার এবং তা পূরণের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, আমি তাকে আমার বড়ভাই হিসেবে দেখি এবং প্রকৃতপক্ষে, আমি তাকে ভাই বলেই সম্বোধন করি।’

শেরিং তোবগে জানান, ঐতিহাসিকভাবে ভারতের সঙ্গে ভুটানের সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ এবং নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন সরকারের গত দুই মেয়াদে এই বন্ধুত্ব আরও ঘনিষ্ট হয়েছে। অর্থনৈতিক ও দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংক্রান্ত বিভিন্ন ইস্যুতে ভারত এবং ভুটান এখন অংশীদার।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী জানান, দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্যিক অর্থনীতিকে ১ হাজার ৫০০ কোটি রুপিতে উন্নীত করার লক্ষ্য নিয়েছে নয়াদিল্লি এবং থিম্পু। এ ছাড়া কিছুদিন আগে ভুটানের জন্য ৮ হাজার ৫০০ কোটি রুপি সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন মোদি। ভুটানের অবকাঠামো, সড়ক, সেতু, শিক্ষা খাতে ব্যয়ের জন্য ধাপে ধাপে ছাড় করা হবে এই অর্থ।

ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের কাছেই অবস্থান ভারত-ভূটান সীমান্তের। সীমান্তের এক প্রান্তে ভারত, অপর প্রান্তে ভুটানের গেলেফু শহর। এই শহরটির অবকাঠামোগত উন্নয়নে সম্পূর্ণ আর্থিক সহায়তা প্রদানের প্রস্তাব সম্প্রতি দিয়েছেন মোদি।

সূত্র : এনডিটিভি

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here