ডেস্ক রিপোর্ট::  এসএসসি পরীক্ষার পর বাবার কাছে মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার বায়না করেছিল মনির আহমেদ (১৬)। বাবা মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় অভিমানে কীটনাশক পান করে ছেলে। মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) রাতে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

মৃত মনির আহমেদ শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার কোদালপুর ইউনিয়নের দাইমি কোদালপুর গ্রামের রতন দেওয়ানের ছেলে। সে এ বছর কোদালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রতন দেওয়ান কোদালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য। এসএসসি পরীক্ষার পর তার ছেলে মনির আহমেদ মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার বায়না করে। কিন্তু মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় সে অভিমানে ১০ দিন আগে কিটনাশক পান করে। এরপর তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করেন। পরে গতকাল মঙ্গলবার রাতে ঢাকার একটি হাসপাতালে মনিরের মৃত্যু হয়। এরপর তাকে গ্রামের বাড়িতে এনে দাফন করা হয়েছে।

কোদালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য সেলিম মিয়া বাবু মৃধা বলেন, সাবেক মেম্বার রতন দেওয়ানের ছেলে মনির মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার বায়না করেছিল। কিনে না দেওয়ায় কয়েক দিন আগে মনির বিষ খেয়েছিল। এরপর সে ঢাকায় হাসপাতালে মারা যায়। সকালে তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

গোসাইরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুষ্পেন দেবনাথ বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। আপনি আমাকে কল করার আগেই অন্যান্য গণমাধ্যম কর্মীরাও আমাকে জানিয়েছে। মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় বাবার প্রতি অভিমান করে ছেলে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে বলে শুনেছি।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here