বিএনপিকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের দল দাবি করে দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, যুদ্ধের সময় আওয়ামী লীগ নেতারা যুদ্ধ না করে পালিয়েছিল।

সোমবার বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) সদ্য বিদায়ী ডিসিসি মেয়র ও বিএনপি নেতা সাদেক হোসন খোকার ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর বিএনপি এই বিক্ষোভের আয়োজন করে।

ডিসিসিকে দুইভাগ করার প্রতিবাদে রোববার ঢাকায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালনকালে পুলিশের জিম্মায় থাকা অবস্থায় সদ্য বিদায়ী মেয়র সাদেক হোসেন খোকাকে সরকারি দলের নেতা-কর্মীরা ছুরিকাঘাত করে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, ‘যুদ্ধের সময় আওয়ামী লীগের নেতারা যুদ্ধ না করে পালিয়ে বেড়িয়েছে। কেউ আবার আবাসিক হোটেলে আমোদ-ফূর্তি করেছে। অন্যদিকে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান রণাঙ্গনে থেকে যুদ্ধ করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি প্রকৃত মুক্তিযুদ্ধ করেছে। মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করায় বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে যত বীরউত্তম, বীরবিক্রম ও বীরপ্রতীক উপাধিধারী রয়েছেন আওয়ামী লীগে তা নেই।’

প্রসঙ্গত, গতকাল রোববার রাজধানীতে একটি অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছিলেন, ‘বিএনপি যুদ্ধাপরাধীদের মূলদল। জামায়াত তাদের সহযোগী।’

এদিকে প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে ডিসিস ভাগ ও খোকার ওপর হামলার প্রতিবাদে আগামী ৮ ডিসেম্বর সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেয়া হয়। এছাড়া ৮ ডিসেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাজধানীর প্রতিটি থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে।

ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবদুস সালামের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান প্রমুখ।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/ঢাকা

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here