মানবতার সেবায় চিকিৎসক হতে চান শেফাক

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছেন শেফাক মাহমুদ। তিনি সকল বিষয়ে এ প্লাসসহ ১১৬৬ নম্বর পেয়েছেন। শেফাক মাহমুদ লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও নয়াদিগন্ত পত্রিকার লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা অধ্যাপক আ হ ম মোশতাকুর রহমানের বড় ছেলে।

তিনি রায়পুর উপজেলার প্রিন্সিপাল কাজী ফারুকী স্কুল এন্ড কলেজর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে পরীক্ষা দিয়ে এ সাফল্য অর্জন করেন। এর আগে শেফাক মাহমুদ লক্ষ্মীপুর ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে পিএসসি পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে ও জেএসসি পরীক্ষায় সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি পান।

এদিকে শেফাক মাহমুদের এই সাফল্যে খুশি তার শিক্ষক ও মা-বাবা। শেফাকের মা-বাবা তাদের সন্তানের উজ্জল ভবিষ্যতের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

শেফাক মাহমুদ বলেন, ভালো ফলাফলের পেছনে আমার শিক্ষক ও মা-বাবার অনেক শ্রম রয়েছে। তারা আমাকে যথেষ্ট সহায়তা করেছেন। ভালো ফলাফল করতে হলে সকলকে অব্যশই শিক্ষকদের উপদেশ মেনে চলতে হবে। এবং বাসায় মা-বাবার পরামর্শ মানতে হবে। আমি বড় হয়ে মানবতার সেবা করতে চাই। একজন চিকিৎসকের মানুষের সেবা করার সুযোগ অনেক বেশি থাকে। তাই অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে ভবিষ্যতে চিকিৎসক হতে চাই। আমি চিকিৎসক হয়ে নিজেকে মানবসেবায় নিয়োজিত রাখতে চাই। ভবিষ্যতে আরো সফলতার জন্য আমি সকলের দোয়া চাই।

শেফাকের মা বলেন, সারা বছর একই ধারাবাহিকতায় পড়াশোনা করেছে শেফাক। তবে শেষের তিন-চার মাস রাত-দিন পড়াশোনা করেছে বললেই চলে। শিক্ষকদের অন্তরিকতা ও শেফাকের পরিশ্রমের ফলে তাকে এ সাফল্য এনে দিয়েছে।

ছেলের এ সাফল্যে অধ্যাপক আ হ ম মোশতাকুর রহমান বলেন, তার এই সাফল্যে আমি খুবই আনন্দিত। একজন বাবা হিসেবে এটা আমার সবচেয়ে বড় পাওয়া। ছেলে-মেয়ের সাফল্যে মানুষ নতুন করে তাদের বাবা-মাকে চিনতে পারে। আমি আমার ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাই, যেন সে বড় হয়ে মানুষের মতো মানুষ হতে পারে। দেশকে ভালোবেসে সাধারণ মানুষের সেবা করতে পারে।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

স্মৃতির পাতায় ক্যাম্পাসের দিন গুলো 

তানজিনা আক্তার লিজা :: ঢাকার অদূরে চির সবুজের বুকে মাথা উচু করে ...