ডেস্ক রিপোর্ট :: চলছে মাঘ মাস, বাইরে প্রচণ্ড ঠাণ্ডা। আবার হঠাৎ করেই নামছে বৃ্ষ্টি। একে তো ঠাণ্ডা তার ওপরে বৃষ্টি হওয়ার কারণে নানাবিধ রোগবালাইয়ের প্রকোপ বাড়ে।

তাই বছরের অন্য সময়ের চেয়ে এ সময়টাই একটু বেশিই সতর্ক থাকতে হয়। বৃষ্টিতে অনুজীবদের আবির্ভাব ঘটে অস্বাভাবিক হারে। তাই শ্বাসযন্ত্রের রোগ, পেটের রোগ, ভাইরাসজনিত রোগ বেশি হয়ে থাকে।

বৃষ্টিতে ফ্লুজাতীয় রোগ বেশি হয়। এ ছাড়া শ্বাসযন্ত্রের রোগ তথা হাঁপানি, সিওপিডি, ব্রঙ্কাইটিস, নিউমোনিয়াও হয়ে থাকে। এ ছাড়া ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় হাঁপানি ও শ্বাসকষ্ট বাড়তে পারে।

এ সময় সুস্থ থাকতে কী করবেন-

১. ফোটানো পানি পান করতে হবে। বারবার হাত ধোয়ার অভ্যাস করা উচিত। রাস্তার ধারে ফুটপাতে তৈরি ফলের জুস; লাচ্ছি, শরবত খাবেন না।

২. সুষম খাদ্য, প্রচুর ফলমূল ও শাকসবজি খেতে হবে। এ ছাড়া ভিটামিন ‘সি’ যেমন- পেয়ারা, কমলা, মাল্টা, আনারস খেতে পারেন।

৩. বৃষ্টি ও ঠাণ্ডা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে হবে। বাইরে বের হলে ছাতা বা রেইনকোট ব্যবহার করতে হবে।

৪. কাঁদা ও ময়লাপানি যেন পায়ে না লাগে সে ধরনের জুতা ব্যবহার করুন। বাইরে থেকে ঘরে ফিরে হাত, মুখ ও পা ভালোভাবে সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।

৫. এ সময় ডেঙ্গুর ও মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধে বাড়ির চারপাশ পরিষ্কার রাখুন।

৬. গোসলে গরম পানি ব্যবহার করুন। এ সময়ে ফ্রিজের খাবার ও ঠাণ্ডা জাতীয় কোনো খাওয়া ভালো।

৭. করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মাস্ক পরুন ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন।

৮. কোনো রোগে আক্রান্ত হলে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবন করবেন না।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here