মাকে দাফনের পর মারা গেলেন ছেলেও !

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: মা হনুফা খাতুন বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যান শনিবার রাত ১১টায়। পরদিন রবিবার সকাল ১০টায় মাকে দাফন করার ঠিক এক ঘন্টা পর হৃদ্রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান বড় ছেলে শহিদ উল্লাহ। মায়ের কোলে হেসে খেলে বড় হওয়া সেই ছেলে চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন মায়ের পাশেই।

হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার সোনাপুর আটিয়া বাড়িতে। হনুফা খাতুন পৌর সোনাপুর গ্রামের আটিয়া বাড়ির বাদশা মিয়া আটিয়ার স্ত্রী ও শহিদ উল্লাহ তাদের বড় ছেলে ।

হনুফা খাতুনের ছোট ছেলে শফিক উল্রাহ জানান, শনিবার রাত ১০টার দিকে তার বসতঘরে থাকা অসুস্থ মাকে দেখতে গিয়ে হৃদ্রোগে আক্রান্ত হন বড় ভাই শহিদ উল্লাহ। এ সময় বাড়ির লোকজন শহিদ উল্লাহকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেন। রাত বেশি হওয়ায় রবিবার সকালে ঢাকা নেয়ার জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়।

শনিবার রাত ১১টায় বার্ধক্যজনিত কারণে আমার মা হনুফা খাতুন মারা যান। রবিবার সকাল ১০টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করে ঘরে আসার ঘন্টাখানেক পর বড় ভাই শহিদ উল্লাহও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। বিকেল ৪টায় মায়ের কবরের পাশে ছেলে শহিদ উল্লাহর দাফন করা হয়।

এদিকে মা ও ছেলের এমন মৃত্যুতে পরিবার ও গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

১৫ আগষ্টের খুন ও ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জিয়াউর রহমান জড়িত: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার :: দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে দেশবাসীর সহযোগিতা ...