ব্রেকিং নিউজ

‘ভূমি ব্যবস্থাপনায় জনদুর্ভোগ ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে’

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন বরিশাল বিভাগের মূল এবং খুলনা বিভাগের অতিরিক্ত দায়িত্বে নিয়োজিত উপ-ভূমি সংস্কার কমিশনার তরফদার মোঃ আক্তার জামীল

.
শিপুফরাজী, চরফ্যাসন প্রতিনিধি :: বরিশাল বিভাগের মূল এবং খুলনা বিভাগের অতিরিক্ত দায়িত্বে নিয়োজিত উপ-ভূমি সংস্কার কমিশনার তরফদার মোঃ আক্তার জামীল বলেছেন,  ভূমি ব্যবস্থাপনায় ও ভূমি সেবায় ইনফরমেশন টেকনোলজি ব্যবহারের মাধ্যমে সেবাগ্রহীতাদের দ্রুত সেবা প্রদান করতে হবে। জনদুর্ভোগ ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে। সরকার সে লক্ষ্যে কাজ করছে। ভূমির সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সেজন্য দক্ষ করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচি পরিচালনা করা হচ্ছে।
.
আজ রবিবার (২৮ জুন) সকালে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে ভোলার দুই উপজেলার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভূমি ব্যবস্থাপনা ও সেবায়  ইনফরমেশন টেকনোলোজির প্রয়োগ শীর্ষক চারদিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কোর্স কর্মসূচি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 
.
এ সময় তিনি আরও বলেন, ভূমি অফিসগুলোতে জনসেবার কার্যক্রম বেগবান করতে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই। এ লক্ষ্যে ভুমি ব্যবস্থাপনা ও ভূমি সেবাকে ডিজিটালাইজেশনের আওতায় আনার জন্য  ভূমি মন্ত্রণালয় এবং ভূমি সংস্কার বোর্ড নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে ভূমি ব্যবস্থাপনাকে আধুনিকায়নের লক্ষে ল্যান্ড ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এলআইএমএস) প্রণীত হয়েছে। দেশের সবকয়টি জেলাতে ই-মিউটেশন চালু করা হয়েছে যার সুফল জনগণ পেতে শুরু করেছে।
.
তরফদার মোঃ আক্তার জামীল আরও বলেন, ভূমি উন্নয়ন করের দাবী নির্ধারণ  ও আদায় পদ্ধতি অনলাইন ভিত্তিক করার কার্যক্রমও চলমান রয়েছে। এছাড়া ভূমি সংক্রান্ত সেবা সহজ করতে সারাদেশের ভূমি ব্যবস্থাপনা ও সেবা প্রদান পদ্ধতিকে অটোমেশনের আওতায় আনার কাজ চলছে। এ সকল কার্যক্রমের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয় এ বছর জাতিসংঘ পুরস্কারও অর্জন করেছে।
.
প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চরফ্যাশন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন, তজুমদ্দিন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আল-নোমান।অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চরফ্যাশন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ শাহীন মাহমুদ।
.
প্রশিক্ষণে ভূমি ব্যবস্থাপনায় তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োগ, ভূমি তথ্য সেবা ও কাঠামো, ই-মিউটেশন, ইউনিয়ন ও উপজেলা ভূমি অফিসের রেজিস্টার সংরক্ষণ ও হালনাগাদ করণ, নামজারি রিভিউ ও মিস মোকদ্দমা, ভূমি উন্নয়ন কর আদায় ও প্রতিবেদন প্রেরণ, রেন্ট সার্টিফিকেট মামলা, খাসজমি ও সায়রাত মহল ব্যাবস্থাপনা, এসএফ লিখন পদ্ধতি, উত্তরাধিকার সম্পর্কিত সংশ্লিষ্ট বিধি-বিধান প্রভৃতি সম্পর্কে প্রশিক্ষণার্থীদের ধারণা প্রদান করা হয়।
.
এছাড়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি রিসোর্স পার্সন হিসেবেও চারটি সেশন পরিচালনা করেন।
.
উল্লেখ্য, ভোলা জেলার চরফ্যাশন ও তজুমদ্দিন  উপজেলার ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা, সার্টিফিকেট সহকারী, সার্ভেয়ার অফিস সহকারী ও নামজারী সহকারীসহ ২৬ জন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করছেন।

 

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এএসডি’র ত্রাণ বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার :: বেসরকারি সংস্থা অ্যাকশন ফর সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট- এএসডি’র উদ্যোগে মহামারি ...