গোলাম মোস্তাফিজার রহমান মিলন, হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ::

দিনাজপুরের হিলিতে ভুয়া কাবিননামায় এক মেয়েকে বিয়ে করে তিন বছর ঘরসংসারকরে আসছিল উপজেলার বোয়ালদাড় গ্রামের সাদেক আলীর ছেলে মুশফিকুর রহমান মুন্না (৪২)।

বিষয়টি স্ত্রী জানতে পেয়ে এর প্রতিবাদ করলে কথিত স্বামী তাদের অন্তরঙ্গ মূহূর্তের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল করে দেয়। এরপর ওই নারীর করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার কালে তাকে আটক করেন থানা পুলিশ।

হাকিমপুর থানার ওসি দুলাল হোসেন জানান, প্রায় ৩ বছর আগে একই গ্রামের এক মেয়ের সাথে দুই সন্তানের জনক মুশফিকুর রহমান মুন্নার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর তাকে নিয়ে পালিয়ে গিয়ে বিয়ের নাটক সাজিয়ে ভুয়া কাবিননামায় বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে তাকে বিভিন্ন ভাড়া বাসায় রেখে ধর্ষণ করে। কয়েকদিন আগে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে ধর্ষণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়।

এরপর ওই মেয়ের করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে সত্যতা পাওয়ায় তাকে আটক করা হয়। আটককৃত ব্যাক্তির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ও পর্ণগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের পূর্বক দিনাজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here