ডেস্ক রিপোর্ট:: নিজ দেশের উৎপাদিত করোনাভাইরাসের টিকা গ্রহণ করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সোমবার সকালে দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সার্ভিসেস (এআইআইএমএস) হাসপাতালে তিনি টিকা গ্রহণ করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এনডিটিভি।

দেশজুড়ে জাতীয়ভাবে দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাদান কর্মসূচির শুরুতে প্রথম টিকা নিলেন নরেন্দ্র মোদি। নিজেদের তৈরি কোভ্যাক্সিন গ্রহণ করেছেন তিনি। ভারত বায়োটেক এবং ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেলে রিসার্চ যৌথভাবে এই টিকা উৎপাদন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী মোদিকে করোনার টিকা দেন নার্স পি নিভেদা। টিকা নেওয়ার পর ৩৫ মিনিট চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থেকে ৭ টার দিকে তার বাসভবনের দিকে রওনা দেন মোদি।

টিকা গ্রহণের একটি ছবি পোস্ট করে নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে নরেন্দ্র মোদি লিখেছেন, এইমসে গিয়ে করোনার প্রথমদফার ডোজ নিলাম। কোভিডের বিরুদ্ধে যেভাবে চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা লড়েছেন, তা সত্যিই অভাবনীয়।

তিনি লিখেছেন, যারা টিকা নেওয়ার যোগ্য তাদরকে অনুরোধ করব টিকা নিতে। চলুন সকলে মিলে একসঙ্গে কোভিড মুক্ত ভারত গড়ে তুলি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী সকাল সকাল টিকা গ্রহণ করেছেন। সাধারণ মানুষ যাতে অসুবিধায় না পড়েন সেজন্য সড়কে কোনও ধরনের যান নিয়ন্ত্রণ ছাড়াই সাধারণভাবে তাকে বহন করা গাড়ি হাসপাতালে পৌঁছায়।

কোভ্যাক্সিন ছাড়াও অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং অস্ট্রাজেনেকার উদ্যোগে কোভিশিল্ড টিকা উৎপাদন করছেন পুনে ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউট। ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশটিতে এই টিকাও প্রয়োগ করা হচ্ছে। এছাড়া রাশিয়া ও কানাডার দুটি টিকা প্রয়োগের অনুমতির পরিকল্পনাও নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, এই পর্যায়ে ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সী নাগরিকদের টিকা দেওয়া হবে। সেইসঙ্গে ৪৫ থেকে ৫৯ বছর বয়সী যাদের কোমর্বিডিটি (অসুস্থতা) রয়েছে, তাদেরও দেওয়া হবে টিকা।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here