বড় ব্যবধানের হার দিয়ে কুল অ্যান্ড কুল কাপের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু করেছে বাংলাদেশ। সফরকারী পাকিস্তানের কাছে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ৫ উইকেটে হেরেছে স্বাগতিকরা।

বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৯২ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা ভালোই করে পাকিস্তান।

লো-স্কোরিং ম্যাচে দুই পাকিস্তানি ওপেনার দলকে সাবলীলভাবেই সামনের দিকে এগিয়ে নিতে থাকেন। কিন্তু দলীয় ৩৬ রানে ইমরান ফারহাতকে (১২) নাসির হোসেন সাজঘরে ফেরাতেই ম্যাচে চেপে বসে স্বাগতিক বোলররা।

এরপর দলীয় ৪২ রানে মোহাম্মদ হাফিজকে (২২) রুবেল হোসেন এবং ইউনুস খানকে (২) সাকিব আল হাসান সাজঘরের পথ দেখালে খেলায় দারুণভাবে ফিরে বাংলাদেশ। দলীয় ৪৪ রানে রুবেলের বলে পাকস্তানি উইকেটরক্ষক সরফরাজ আহমেদ (২) সাকিবের হাতে ধরা পড়লে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে স্বাগতিকরা।

দলীয় ৬৩ রানে ওমর আকমলকে (৭) পরিষ্কার বোল্ড করে দিয়ে ম্যাচে আবারো উত্তেজনা ছড়ান সাকিব। কিন্তু তখনও একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলতে থাকেন পাকিস্তানি অধিনায়ক মেসবাহ-উল হক।

এরপর সাকিবের বলে শাহরিয়ার নাফিস নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে আসা শহীদ আফ্রিদির ক্যাচ ছেড়ে দিলে যেন পুরো ম্যাচটাই হাত ফসকে যায় বাংলাদেশের। আর ইনিংসের বাকিটা ছিল পাকিস্তানের।

আফ্রিদির স্বভাবসুলভ ঝড়ো ব্যাটিং এবং আর মেসবাহর ফিনিশিংয়ে ৫ উইকেট হাতে রেখেই ২৪ ওভার ২ বল বাকি থাকতে ৯৩ রান করে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পাকিস্তান। আফ্রিদি ২৩ বলে ২৪ আর মেসবাহ ১৬ রানে অপরাজিত ছিলেন।

বাংলাদেশের পক্ষে রুবেল ২৩ রানের বিনিময়ে ২টি এবং সাকিব ৪২ রান খরচে ২টি উইকেট লাভ করেন। অপর উইকেটটি পান বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী নাসির হোসেন।

এরআগে দিবা-রাত্রির ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৩০ ওভার ৩ বলে মাত্র ৯১ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। পাকিস্তানের পক্ষে শহীদ আফ্রিদি ২৫ রানে ৫ উইকেট নিয়ে একাই স্বাগতিকদের ইনিংস ধসিয়ে দেন।

বোলিংয়ে ২৫ রানে ৫ উইকেট এবং ব্যাটিংয়ে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৩ বলে ২৪ রান সংগ্রহ করে ম্যাচ সেরা হন সদ্য দলে ফেরা পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/স্পোর্টস নিউজ

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here